সম্পাদকীয় মহৎ কাজ কখনও ঝুঁকি ছাড়া সম্পন্ন হয়নি। -হেরোডোটাস

মহাসড়কে অবৈধ স্থাপনা

প্রকাশিত হয়েছে: ১৮-১১-২০১৯ ইং ০১:০৪:১৯ | সংবাদটি ১২৮ বার পঠিত

মহাসড়কের অবৈধ স্থাপনা অপসারণের জন্য বছর খানেক আগে নির্দেশনা দেয়া হলেও তা পুরোপুরি কার্যকর হয়নি। চলতি বছরের শুরুতে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী মহাসড়কের অবৈধ স্থাপনা অপসারণের নির্দেশ দেন। কিন্তু তা কার্যকর হয়নি। কোন কোন এলাকায় তাৎক্ষণিক কার্যকর হলেও কিছুদিনের মধ্যেই অবৈধ স্থাপনা পুনরায় নির্মাণ করা হয়। সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নয়নে সরকারের একের পর এক উদ্যোগ প্রায় ব্যর্থই হচ্ছে বলা যায়। তাই ক্রমেই গতিহীন হয়ে পড়ছে মহাসড়ক। যান চলাচলে বিশৃঙ্খলা আর মহাসড়কের জায়গা দখল করে ব্যবহারের ফলে দেশের প্রায় সব মহাসড়কেই যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। আর দিনে দিনে শুধু বেড়েই চলেছে এই সমস্যা। আর এই সমস্যার অন্যতম কারণ হচ্ছে মহাসড়কের অবৈধ স্থাপনা। অবশ্য মহাসড়কের অবৈধ যানবাহন বৃদ্ধিও বিশৃঙ্খলার আরেকটি কারণ বলে অভিহিত করছেন বিশেষজ্ঞগণ। দেশের সড়ক-মহাসড়ক নিরাপদ করতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের পাশাপাশি অবৈধ যানবাহন নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।
দেশের প্রায় সাড়ে ২১ হাজার কিলোমিটার মহাসড়কের দু’পাশে রয়েছে প্রচুর অবৈধ স্থাপনা। রীতিমতো দখলের মহোৎসব চলছে মহাসড়কের দু’পাশ জুড়ে। নির্মাণ করা হয়েছে স্থায়ী ও অস্থায়ী উভয় ধরনের অবকাঠামো। তবে অস্থায়ী স্থাপনাই বেশি। স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তি ও রাজনৈতিক নেতারাই এই দখলবাজির সঙ্গে জড়িত বলে অভিযোগ রয়েছে। দিন দিন দখলের মাত্রা বাড়লেও অবৈধ স্থাপনার কোন তালিকা নেই সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের হাতে। এছাড়া, প্রচলিত আইনেও অবৈধ স্থাপনা নির্মাণকারীদের বিরুদ্ধে কোন শাস্তির বিধান নেই। অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে নিজস্ব নিরাপত্তা বাহিনী, এমন কি ম্যাজিস্ট্রেটও নেই সড়ক বিভাগের অধীনে। সবচেয়ে বেশি অবৈধ স্থাপনা রয়েছে এমন মহাসড়কগুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক। সড়ক দুর্ঘটনা, যানজটসহ যানবাহন চলাচলে প্রতিবন্ধকতার অন্যতম কারণ হচ্ছে অবৈধ স্থাপনা। কিন্তু বারবার এগুলো অপসারণের জন্য নোটিস দেয়া হলেও তা কর্ণপাত করে না সংশ্লিষ্টরা। আন্তর্জাতিক মানদ- অনুযায়ী প্রতিটি সড়কের মূল রাস্তায় অন্তত ৩০ মিটারের মধ্যে কোন স্থাপনা থাকতে পারবে না। আমাদের দেশে সরকারি বিধানেও তা উল্লেখ রয়েছে। কিন্তু তা শুধু কাগজপত্রেই সীমাবদ্ধ। এ দেশে কোন রাস্তায়ই সংরক্ষিত ভূমি সীমানা নির্ধারণ করা হয় নি।
রাস্তার দু’পাশের স্থাপনা উচ্ছেদে রয়েছে নানা প্রতিবন্ধকতা। প্রথমত রাস্তার দু’পাশে ভূমি সীমানা নির্ধারণ করা হয়নি; ফলে সড়কের পাশে কতোটুকু জায়গা বাদ দিয়ে স্থাপনা নির্মাণ করা যাবে, সেটা জানা নেই সাধারণ মানুষের। দ্বিতীয়ত সড়কের পাশের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের ব্যাপারে নেই কোন আইন। তাই অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে প্রথমেই সড়ক মহাসড়কের উভয় পাশে সংরক্ষিত ভূমি সীমানা চিহ্নিত করতে হবে। অতীতে বিভিন্ন সড়ক নির্মাণের সময় উভয় পাশে পিলার বসিয়ে সীমানা নির্ধারণ করা হতো। এখন সেই নিয়ম মানা হচ্ছে না। সর্বোপরি সড়ক পথ নিরাপদ ও নির্বিঘœ করতে হলে সব অবৈধ স্থাপনা অপসারণ করতে হবে। প্রয়োজনে এই সংক্রান্ত নতুন আইন প্রণয়ন করা দরকার।

 

শেয়ার করুন

Developed by: Sparkle IT