সম্পাদকীয়

টেকসই হবে মহাসড়ক

প্রকাশিত হয়েছে: ২১-১১-২০১৯ ইং ০০:৩২:০১ | সংবাদটি ২৬৭ বার পঠিত
Image


এবার জাতীয় মহাসড়ক টেকসই করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। দেশের জাতীয় মহাসড়কগুলোর স্থায়িত্ব নিয়ে প্রশ্ন দীর্ঘদিনের। প্রচুর অর্থ ব্যয়ে সড়ক নির্মাণ বা সংস্কার করা হলেও সেগুলো অতিবৃষ্টিসহ নানা কারণে অল্প দিনেই নষ্ট হয়ে যায়। এই প্রেক্ষাপটেই এবার জাতীয় মহাসড়ক টেকসই করতে প্রকল্প গ্রহণ করা হচ্ছে। একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত খবরে প্রকাশ-টেকসই জাতীয় মহাসড়ক নির্মাণ, মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণের জন্য আধুনিক প্রযুক্তির সরঞ্জাম ও যন্ত্রপাতি সংগ্রহ করা হবে। প্রাথমিকভাবে এই প্রকল্পে ব্যয় ধরা হয়েছে ৪৭ কোটি ৯৫ লাখ টাকা। সম্প্রতি এই প্রকল্পটি অনুমোদন দিয়েছেন পরিকল্পনা মন্ত্রী। প্রকল্পটি বাস্তবায়নের মাধ্যমে বিদ্যমান সড়ক নেটওয়ার্কের দৈনন্দিন রক্ষণাবেক্ষণ কাজ নিজস্ব জনবল দিয়ে আধুনিক যন্ত্রপাতির সাহায্যে সম্পাদন করা হবে। এছাড়া, মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণের মাধ্যমে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের সড়ক নেটওয়ার্ক নিরবচ্ছিন্ন ও বাধাহীনভাবে সচল রাখা সম্ভব হবে বলে আশা করছে সরকার।
খবরটি সত্যি আনন্দের এই জন্য যে, এমনি একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে দেরীতে হলেও ভাবতে শুরু করেছেন সংশ্লিষ্টরা। যদিও কোন প্রকল্পের শুরুতেই যা নিয়ে আলোচনা হয় তাহলো প্রকল্পের স্থায়িত্ব। কোন সড়ক নির্মাণের সময় এর স্থায়িত্ব কতো বছর হতে পারে, তার একটা মোটামুটি ধারণা নিয়েই প্রকল্পের কাজ করা উচিত সংশ্লিষ্টদের। কিন্তু বাস্তবে তা নিয়ে কেউ খুব একটা ভাবে না। তাদের কাছে জরুরি হয়ে পড়ে যেনতেনভাবে কাজটা শেষ করেই টাকা উত্তোলন করে নেয়া। আর সড়ক নির্মাণসহ যে কোন সরকারী নির্মাণ কাজে অনিয়ম, দুর্নীতি আর লুটপাটের কথা তো আর নতুন করে বলার প্রয়োজন নেই। গবেষকদের মতে, আমাদের সড়ক-মহাসড়কের স্থায়িত্ব আশানুরূপ না হওয়া কিংবা নির্মাণের কিছুদিনের মধ্যেই সড়ক ভেঙে যাওয়ার কারণ হচ্ছে নির্মাণ প্রকল্পের অনিয়ম দুর্নীতি। অর্থাৎ প্রায় প্রতিটি সড়কই যথাযথ সিডিউল অনুযায়ী নির্মাণ হয় না, তাই এর স্থায়িত্ব হয় অল্প। আর বরাদ্দ অর্থের মোটা অংশই লুটেপুটে নেয় ঠিকাদার থেকে শুরু করে সরকারি দুর্নীতিবাজ চাকরিজীবীরা।
সড়ক নির্মাণে এই যে দুর্নীতির মহোৎসব হয়, যে কারণে সড়কের স্থায়িত্ব আশানুরূপ হয় না-এই ব্যাপারটি উপলব্ধি করতে হবে সংশ্লিষ্টদের। প্রকল্পের অর্থ লুটপাটকারী চক্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। যথাযথ নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে সরকার প্রদত্ত নির্দেশনা অনুযায়ী সড়ক নির্মাণ করা হলে তার স্থায়িত্ব প্রত্যাশা অনুযায়ী হবে, এতে সন্দেহ নেই। সরকার বলছে, এখন নতুন সড়ক নির্মাণের চেয়ে পুরানো সড়কগুলোর স্থায়িত্ব বাড়ানোর ওপর জোর দেয়া হবে। এই সিদ্ধান্তেরও সমালোচনা করেছেন বিশেষজ্ঞগণ। দুর্নীতি-লুটপাট পরিহার করে স্বচ্ছতার সাথে উন্নয়ন প্রকল্প অব্যাহত থাকবে, এটাই নিয়ম।

 

 

শেয়ার করুন

Developed by:Sparkle IT