প্রথম পাতা

লুকিয়েও শেষ রক্ষা হলোনা বানরটির

প্রকাশিত হয়েছে: ২২-১১-২০১৯ ইং ০৩:৩১:২৯ | সংবাদটি ৬৯ বার পঠিত

গোপাল দত্ত, বড়লেখা (মৌলভীবাজার) থেকে : ধানের ক্ষেতে লুকিয়েও নিজেকে রক্ষা করতে পারলোনা একটি বানর। বিক্ষুব্ধ জনতার হাতে তাকে প্রাণ দিতে হলো। পরে মৃত বানরটিকে রশি দিয়ে ঝুলিয়ে রাখা হয়। গত বুধবার বড়লেখা উপজেলায় এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় বাসিন্দা সূত্রে জানা গেছে, গত এক মাস আগে গলায় লাল রঙের রশি বাঁধা অবস্থায় একটি বানর লোকালয়ে দেখা যায়। হঠাৎ করে এই বানরটি মানুষের ওপর আক্রমণ শুরু করে। বেশিরভাগ আক্রমণের শিকার হয়েছে স্কুলগামী শিশুরা। এতে শিশুসহ সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দেয়। ভয়ে অনেক শিশু স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছিল। বিভিন্ন সময় আহতদের মধ্যে আছেন ইউনিয়নের তানিয়া বেগম (৮), সেলিম আহমদ (৮), মারুফ আহমদ (১০), বিউটি বেগম (১১)। এই চারজনসহ রোকনপুর, বড়খলা, কাঠালতলী ও গৌড়নগর এলাকার শিশুসহ প্রায় ২৫ জনকে আঁচড়ে-কামড়ে আহত করে এই বানরটি। আহতদের সিলেট ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছে। এতে মানুষের মাঝে আতঙ্ক দেখা দেয়। বানরের আক্রমণ থেকে পরিত্রাণ পেতে স্থানীয় ইউনিয়ন চেয়ারম্যান এনাম উদ্দিন গত ১৪ নভেম্বর উপজেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় বন বিভাগের কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। এরপর বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ মৌলভীবাজারের লোকজন এলাকা পরিদর্শন করেন। পরে তারা ঢাকা থেকে যন্ত্রপাতি নিয়ে এসে বানরটি ধরবেন বলেও স্থানীয়দের জানিয়ে যান।
এলাকাবাসী জানান, গত বুধবার বেলা ১১টা থেকে কয়েকশ’ লোক বানরটিকে ধরতে লাঠি, দা, নিয়ে ধাওয়া করেন। এক পর্যায়ে বানরটি প্রাণ বাঁচাতে আশ্রয় নেয় একটি ধানক্ষেতে। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। সেখানে বিকেল আনুমানিক চারটার দিকে বানরটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলা হয়। পরে স্থানীয় সায়েব আলীর মোকাম এলাকায় রশি দিয়ে বানরকে ঝুলিয়ে রাখা হয়। বেশ কিছু সময় বানরটি ঝোলানো অবস্থায় ছিল। পরে একটি টিলায় বানরটিকে মাটিচাপা দেওয়া হয়। স্থানীয় বাসিন্দা আমজাদ হোসেন পাপলু জানান, বানরটি এ পর্যন্ত যাদের আক্রমণ করেছে, তাদের অবস্থা খুব খারাপ। আহতের বেশিরভাগ গরীব মানুষ। চিকিৎসা করানোরও টাকা নেই তাদের। গত একমাস থেকে মানুষ আতঙ্কে ছিল। বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী বানরটিকে ধাওয়া করে পিটিয়ে মেরে ফেলে। এরকম কথা জানালেন ওই এলাকার জাকারিয়া আহমদও। দক্ষিণভাগ উত্তর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এনাম উদ্দিন গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে বলেন, ‘শিশুসহ প্রায় ২৫ জনকে বানরটি আক্রমণ করে আহত করেছে। স্কুলের বাচ্চাদের বেশি আক্রমণ করেছে। বন বিভাগকে জানিয়েছিলাম। তাদের লোকজন গত রোববার স্পট দেখেও গিয়েছিল। ঢাকা থেকে যন্ত্রপাতি নিয়ে আসার কথা ছিল। কিন্তু মানুষ বিক্ষুব্ধ হয়ে মেরে ফেলেছে।’ বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ মৌলভীবাজার রেঞ্জ কর্মকর্তা জৌলহাস উদ্দিন বলেন, ‘বানরটিকে মেরে ফেলার খবর জানিনা। আমাদের মৌলভীবাজার কার্যালয়ে যন্ত্রপাতি নেই। ঢাকা থেকে যন্ত্রপাতি আনার ব্যবস্থাও করি। স্থানীয় চেয়ারম্যানের সাথে কথাও বলেছিলাম।’

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সভাপতি ছাড়া যে কোন পদে পরিবর্তন : কাদের
  • ডাক্তারদের ঘাড়ে কয়টা মাথা যে বলবেন খালেদা জিয়া খারাপ আছেন: ফখরুল
  • বন্ধু ভারত যেন আতঙ্ক জাগানো কিছু না করে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
  • বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন মোদি, প্রণব ও সোনিয়া
  • সড়কে নামার অপেক্ষায় ‘নগর এক্সপ্রেস’
  • ধর্মপাশায় ১৪৪ ধারা জারি
  • সকল ক্ষেত্রে দলের ত্যাগী নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করা হবে
  • জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের নয়া কমিটির প্রতি ইনাম চৌধুরীর অভিনন্দন
  • বালাগঞ্জ ওসমানীনগর মুক্ত দিবস আজ
  • বিজয়ের মাস
  • ছবি
  • লুৎফুর-নাসির জেলার এবং মাসুক-জাকির মহানগর আ.লীগের নেতৃত্বে
  • খালেদার জামিন শুনানি এজলাস কক্ষে নজিরবিহীন হট্টগোল
  • টেন্ডারবাজ, চাঁদাবাজ ও সন্ত্রাসীদের কঠোর বার্তা
  • পররাষ্ট্রমন্ত্রীর অভিনন্দন
  • ‘মুশতাককে গণপিটুনি দিয়ে মঞ্চ থেকে বের করে দেই’
  • সিলেটের বিভিন্ন অঞ্চল মুক্ত দিবস আজ
  • প্রতিবন্ধীদের সম্পর্কে ‘নেতিবাচক মানসিকতা’ পরিহার করুন : প্রধানমন্ত্রী
  • বিজয়ের মাস
  • বিশ্ব ইজতেমার ১ম পর্ব শুরু ১০ জানুয়ারি
  • Developed by: Sparkle IT