প্রথম পাতা

অপপ্রচারে কান না দিতে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান

প্রকাশিত হয়েছে: ২২-১১-২০১৯ ইং ০৪:১০:৩৭ | সংবাদটি ২৪১ বার পঠিত
Image

ডাক ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গুজবে কান না দিতে জনগণের প্রতি আহবান জানিয়ে বলেছেন, গুজব ছড়িয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মাঝে মাঝে আমরা দেখি, অপপ্রচার চালিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করা হয়। আমি সবাইকে একটা কথা বলবো, এই অপপ্রচারে কান দেবেন না।’
প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিভিন্ন অপপ্রচার বিশেষকরে পেঁয়াজ, লবণ প্রভৃতির সংকটের অপপ্রচার চালিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে।
তিনি বলেন, ‘এটা করবে আমি জানি, এটা স্বাভাবিক। কাজেই সেটাকে মোকাবেলা করেই আমাদের চলতে হবে, আমরা সেভাবেই চলছি।’
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকা সেনানিবাসের আর্মি মাল্টিপারপাস হলে অনুষ্ঠিত এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে একথা বলেন।
দেশের একটি স্বার্থান্বেষী মহলের পেঁয়াজ, লবন এবং চালের মত নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্যবৃদ্ধির অপপ্রচার চালিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করার সাম্প্রতিক অপচেষ্টার প্রেক্ষিতে তিনি এসব কথা বলেন।
মুক্তিযুদ্ধে বীরশ্রেষ্ঠ পরিবারের সদস্য এবং সশস্ত্র বাহিনীর খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সশস্ত্র বাহিনী দিবস-২০১৯ উপলক্ষ্যে এই সংবর্ধনার আয়োজন করেন প্রধানমন্ত্রী।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাঁর সরকার মাছ এবং সবজিসহ বিভিন্ন তরিতরকারীর উৎপাদন বৃদ্ধি করেছে এবং এখন জনগণের নিরাপদ খাদ্য এবং পুুষ্টির চাহিদা পূরণে বিশেষ মনযোগ দিচ্ছে।
তিনি বলেন, ‘আমরা কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে ৩০ প্রকারের ওষুধ বিনামূল্যে প্রদান করছি। জনগণের মৌলিক চাহিদাগুলো পূরণে আমরা যথাযথ কর্মসূচি গ্রহণ করেছি এবং তা অব্যাহত থাকবে।’
শেখ হাসিনা মুক্তিযুদ্ধের বীরত্বগাঁথা ইতিহাস আগামী প্রজন্মের মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য মুক্তিযোদ্ধাদেরকে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের কাহিনী শিশু, নাতি-নাতনী এবং স্থানীয় জনগণের কাছে তুলে ধরার আহবান জানান।
তিনি বলেন, ‘আমরা সকল উপজেলাতে মুক্তিযুদ্ধ কমপ্লেক্স তৈরী করে দিচ্ছি। কাজেই সেসব অঞ্চলের মুক্তিযুদ্ধের দলিল-দস্তাবেজ আর নষ্ট হবে না এবং আগামী প্রজন্মের শিশুরা যুদ্ধের প্রকৃত ঘটনা জানতে পারবে।’
তিনি আরো বলেন, ‘আমরা মুক্তিযুদ্ধে বিজয় অর্জন করেছি, আমরা বিজয়ী জাতি, প্রজন্মের পর প্রজন্ম জানবে বাঙালি জাতি কখনো হারতে জানে না। এর মাধ্যমে পরবর্তী প্রজন্মের আত্মমর্যাদার ধারণা তৈরী হবে এবং তাঁরা মাথা উঁচু করতে চলতে শিখবে।’
বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘জাতির পিতা তাঁর জ্বালাময়ী ভাষণে বলেন- বাঙালিকে কেউ দাবায়ে রাখতে পারবা না। কেউ অতীতে বাঙালিকে দাবিয়ে রাখতে পারে নাই এবং ভবিষ্যতেও পারবে না।’
প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে বিজয় অর্জনের মাধ্যমে সমগ্র বিশ্বে যে সম্মান অর্জন করেছিল কিন্তু ১৯৭৫ সালে জাতির পিতাকে হত্যার মধ্যদিয়ে তা আবার হারিয়ে ফেলে এবং দেশটি একটি হত্যা,ক্যু, ষড়যন্ত্রের দেশের পরিনত হয়।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, সে সময় ১৯টি ক্যু সংঘঠিত হয়েছিল এবং সশস্ত্র বাহিনীর বহু সদস্য এবং মুক্তিযোদ্ধা অফিসারদের হত্যা করা হয়।

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • ভক্ত আশেকানদের মাজারে একত্রিত না হওয়ার অনুরোধ এসএমপির
  • অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে শেখ হাসিনা কঠোর অবস্থানে রয়েছেন : ওবায়দুল কাদের
  • একাদশ জাতীয় সংসদের দ্বিতীয় বাজেট অধিবেশন শেষ
  • ‘পাপুল কুয়েতের নাগরিক নন’
  • শায়েস্তাগঞ্জের ইউএনও করোনা আক্রান্ত
  • রিজেন্ট চেয়ারম্যান সাহেদের ব্যাংক হিসাব জব্দ
  • সিলেট বিভাগে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ১১৯, মৃত্যু ১, সুস্থ ৬৬
  • হাওরাঞ্চল থেকে ধান যাচ্ছে বিভিন্ন জেলায়
  • গোলাপগঞ্জ উপজেলার ভাদেশ্বর ইউপি চেয়ারম্যান জিলাল উদ্দিন অপসারিত
  • দিশেহারা শরীফগঞ্জ ইউনিয়নের মানুষ
  • রাণাপিং আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় হুমকির মুখে
  • সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন মারা গেছেন
  • সিলেট-সুনামগঞ্জসহ দেশের ২৩ জেলা বন্যাকবলিত হতে পারে
  • সাবেক স্পিকার হুমায়ুন রশীদ চৌধুরীর ১৯তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ
  • দুর্নীতিবাজ যেই হোক ব্যবস্থা নিচ্ছি, নেব : প্রধানমন্ত্রী
  • করোনায় আরও ৪১ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩৩০৭
  • সিনিয়র সাংবাদিক রাশীদ উন নবী আর নেই
  • ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র হলেন আমির হোসেন আমু
  • আসন্ন ঈদে করোনা সংক্রমণ বিস্তার রোধে সকলকে জনযোদ্ধা হিসেবে কাজ করতে হবে : ওবায়দুল কাদের
  • করোনাভাইরাস বাতাসেও ছড়াতে পারে, এ দাবি পর্যালোচনা করছে ডব্লিওএইচও
  • Image

    Developed by:Sparkle IT