সাহিত্য সুফিয়া জমির ডেইজী

আমি কবি হবো

প্রকাশিত হয়েছে: ২৪-১১-২০১৯ ইং ০১:১৮:৩৯ | সংবাদটি ৯০ বার পঠিত

কবিতাকে ভালোবেসে কবিতার জন্য বেঁচে আছি
কবিতাকে পাঠ করে অনেক সুখে আছি
অনাগত সুদিনের কবিতা উপমায় ভালো আছি
একদিন শুধু কবিতার উপমা পেতে চাই; কবিতাকে আকণ্ঠ
শিরোনামে সাজাবো। আমি যাবো কবিতার কাছে
অনেক বার পুড়ছি; বহুদিন কেঁদেছি
ভাঙাসাঁকোর মতো হয়েছি
ইদানিং চোখের ঝিলিকে উপমা পাই নি-
কবিতার জন্য অনেক দিন
বোকার ন্যায় হাস্যকর হয়েছি।
কবিত্বে টিকে থাকার নথি-রেকর্ড-রেজিস্টার
এখনো স্থায়ী হয় নি-
এরপর হবে কী?

সারাটা জীবন আমি চেয়ে দেখলাম
পাখিরও ডানা আছে
আমি পাখির কাছে যাবো
ফুলের কাছে যাবো
সমুদ্রের তীরে যাবো
নদীর কাছে যাবো
আমি কবির কাছে যাবো
আর আমার কবিতায় আমি হবো কবি।
কবি হবো, আজ কে কোথায় ঘুমোচ্ছো?
দেখো আমার কবিতা তোমাদের মনোভূমের
ঘরে জমা হবে!
যদি পারো আমাকে সাদা কাগজ
আর একটা কলম দিও...
আমি বীরদর্পে কবিতা লিখবো,
আমিতো কবি হতে পারি নি-
আমি এসেছি তোমাদের কথা বলতে
বেঁকে-চুরে বসো, দেখো আমাকে দিয়ে কোনো
একটি কবিতা লিখা হবে কী?
আজ তোমাদের প্রাণে ধাক্কা দেবো-
আমার অলিখিত কবিতার সবগুলো শব্দ দেবো!
যদি পারো মাঠ-মাঠান্তর কবিতায় সবুজ করো
আমার হিঙুল নয়নের তীর
করো কবিতায় সবুজ, আমার মনের নোঙরে ভেসে আসা
বৃষ্টিভেজা নির্জন বালিকার সংসার, আমি মুক্তি
চেয়ে নেবো আলোর অভিপ্রায়ে কবিতার খাতায়-পাতায়।

কারণ; কোনোদিন আমি কবিতা লিখতে পারি নি-
অস্থির হওয়া কোনো যানবাহনের মতো আমি
তোমাদের কবিতা পড়ি;
আজ নির্বিঘেœ কবিতা আমার গর্ভে সন্তান
ধারণের মতো ধারণ হবে
প্রসবিত হবে সন্তান প্রসবিত উল্লাসের উৎসবে
তোমাদের মায়াবী দখলে কবিতা থেকে পৃথক হবো না-
জীবনের সাম্পানে একটা সফেদ ডায়েরি আছে
শুনো আমার কবিতার কোনো ছাল-বাকলা
গ্রামীণ-টাওয়ারে যাবে না, প্রতিদিন কথনে-মাথনে
চেতনে-অচেতনে আমার মতিগতি
তোমাদের জন্য অহিংসার হাঁড়ি
কেননা; আমি আজ কবি হবো
আমি কবি হবো, আমি হবো কবি।

 

শেয়ার করুন

Developed by: Sparkle IT