উপ সম্পাদকীয় দৃষ্টিপাত

সাংস্কৃতিক আগ্রাসন

আলী আরমান প্রকাশিত হয়েছে: ০৪-১২-২০১৯ ইং ০০:৩১:১৫ | সংবাদটি ৩১৪ বার পঠিত
Image

ইলেকট্রনিকস ও প্রিন্ট মিডিয়ার মাধ্যমে আমরা প্রতিনিয়ত হত্যা, গুম, চুরি, ছিনতাই, ধর্ষণসহ নানা ধরনের সামাজিক অস্থিরতার খবর পেয়ে থাকি। সামাজিক এসব অবক্ষয় ও বিশৃঙ্খলার মূলে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে প্রভাব ফেলছে ভিনদেশীয় সাংস্কৃতিক আগ্রাসন। সাংস্কৃতিক আগ্রাসন কী? সমাজবিজ্ঞানী ম্যাকাইভার বলেছেন, ‘আমরা যা তাই আমাদের সংস্কৃতি।’ বিশদভাবে বলা যায়, কোনো অঞ্চলে বসবাসকারী মানুষের আচার-ব্যবহার, সামাজিক সম্পর্ক, ধর্মীয় রীতিনীতি, শিক্ষা-দীক্ষা, জীবিকার উপায়, সংগীত, নৃত্য, শিল্প, সাহিত্য, দর্শন, বিজ্ঞান, নাট্যশালা এ সবই তার সংস্কৃতি। কোনো জাতির পরিচয় তুলে ধরার জন্য সংস্কৃতি একটা বিরাট পন্থা হিসেবে কাজ করে। এটি একটি রাষ্ট্র বা জাতির মেরুদ-। সংস্কৃতি এমন এক শক্তিশালী নিয়ামক, যা কোনো জাতি বা রাষ্ট্রের উন্নতির প্রণোদনা হিসেবে কাজ করে।
একটি দেশের একক সংস্কৃতি যখন অন্য দেশের সংস্কৃতিকে ধ্বংস করে নিজের আধিপত্য বিস্তার করতে চায় এবং অন্য সংস্কৃতির স্থান যখন সেই সংস্কৃতি নিয়ে নেয় তখন তাকে সাংস্কৃতিক আগ্রাসন বলে। আমাদের রয়েছে নিজস্ব ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি। অথচ আমাদের এই নিজস্ব ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি আজ ভিনদেশীয় সাংস্কৃতিক আগ্রাসনের শিকার। সাংস্কৃতিক আগ্রাসনের ভেতর দিয়ে একটা দেশের নিজস্ব ইতিহাস, মূল্যবোধ ও বিশ্বাসের ধরন উলটাপালটা করে দেওয়া হয়। অস্পষ্ট করে তোলা হয় তার আত্মপরিচয়কে। ভিনদেশি সংস্কৃতির প্রভাবে আমাদের গৌরবোজ্জ্বল সংস্কৃতি আজ হারিয়ে যেতে বসেছে। বিদেশি চ্যানেলগুলোয় প্রচারিত কার্টুনগুলো আমাদের শিশুদের এতটাই প্রভাবিত করছে যে, বাসার টিভি অন করলেই তারা কার্টুন দেখতে চায়। বাসার বড়ো কেউ যদি খবর বা গুরুত্বপূর্ণ কোনো অনুষ্ঠান দেখতে চায় তাহলে তারা কান্নাকাটি শুরু করে। আর এসব কার্টুনগুলোতে এমন কিছু চরিত্র থাকে যার সংলাপ ও মুখভঙ্গি শিশুসুলভ নয়। এছাড়াও কিছু কিছু টিভি সিরিয়ালে শিশুদের দিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ, অশালীন, ঝগড়া-বিবাদপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করানো হয় যা আমাদের শিশুদের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। এর ফলে শিশুদের সুষ্ঠু মানসিক বিকাশের অন্তরায় ঘটে। এছাড়া বহু সিরিয়ালে এমন কিছু চরিত্র, সংলাপ, কাহিনি প্রচার করা হয় যার প্রভাবে সমাজে অশান্তি ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়। এসব বিদেশি সিরিয়ালে দেখানো পোশাক ও অলংকারের অনুকরণে বাজারে পোশাক, অলংকার তৈরি হয়। গ্রাম থেকে শহরে এসব ভিনদেশি পোশাক ও অলংকারে ছেয়ে যায়। হুমড়ি খেয়ে জনগণ এসব কিনতে দোকানে দোকানে ভিড় জমায়। এ সময় নানা অঘটন ঘটতে দেখা যায়। ‘পাখি’ ড্রেস কিনে না দেওয়ায় এক গৃহবধূর আত্মহত্যার ঘটনা আমরা পত্র-পত্রিকার মাধ্যমে জেনেছি।
সাম্প্রতিক ঘটে যাওয়া অনেক হত্যাকা- দেখেছি যেগুলোর মূলে ছিল বিদেশি সিরিয়ালের অনুকরণে গড়ে তোলা পরকীয়া বা অবৈধ প্রেমের ফল। পরবর্তীকালে এক অপরাধীকে স্বীকার করতে শুনেছি হত্যার পরিকল্পনা ও কৌশল এসব সিরিয়াল ‘ক্রাইম পেট্রোল’ থেকে রপ্ত করেছেন। এছাড়া চলতি বছরের ২৩ আগস্ট দেশের শীর্ষস্থানীয় পত্রপত্রিকাগুলোতে প্রকাশিত হয় শেরপুরের শ্রীবরদীতে পুকুরের পানিতে ডুবে তামিম মিয়া নামের তিন বছর বয়সি এক শিশুর মৃত্যুর খবর। একটি পত্রিকার শিরোনাম ছিল এমন, ‘হিন্দি সিরিয়ালে মশগুল মা, পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু। জানা যায়, ছেলেকে খেলতে দিয়ে মা হিন্দি সিরিয়াল দেখতে মগ্ন হয়ে পড়ে। এদিকে ছেলের কথা সেই মায়ের মনেই ছিল না। ছেলেটি খেলতে খেলতে বাড়ির পাশের পুকুরে পড়ে যায় এবং ঘটনাস্থলেই মৃত্যুবরণ করে। এরকম ঘটনা প্রতিনিয়ত পত্রপত্রিকার মাধ্যমে আমাদের চোখে পড়ে। এসব সাংস্কৃতিক আগ্রাসন থেকে মুক্ত হতে না পারলে হারাতে হবে আমাদের হাজার বছরের ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতি। হারাতে হবে জাতি হিসেবে আমাদের স্বাতন্ত্র্যতা, হারাতে হবে আত্মপরিচয়। এসব সাংস্কৃতিক আগ্রাসন থেকে মুক্তি পেতে হলে আমাদের ভিনদেশি সংস্কৃতির নেতিবাচক প্রভাব থেকে দূরে থাকতে হবে। আমাদের দেশীয় সংস্কৃতির চর্চা বাড়াতে হবে। দেশীয় টিভি চ্যানেলগুলোকে মানসম্মত অনুষ্ঠান প্রচার করতে হবে। সর্বোপরি দেশীয় সংস্কৃতি মনে-প্রাণে ধারণ করা চাই। এছাড়া আমাদের শিশুদের উত্তম শিক্ষায় গড়ে তুলতে হবে। তাহলেই সাংস্কৃতিক আগ্রাসন মুক্ত সমাজ বিনির্মাণ করা সম্ভব হবে।
লেখক : শিক্ষার্থী।

 

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

উপ সম্পাদকীয় এর আরো সংবাদ
  • নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতকরণে সচেতন হতে হবে
  • কোভিড-১৯ মানব ইতিহাসে বড় চ্যালেঞ্জ
  • একটি খেরোখাতার বয়ান
  • পরিবেশ রক্ষা ও জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ
  • পর্নোগ্রাফির বিষবাষ্প থেকে মুক্তি মিলবে কবে?
  • জীববৈচিত্র এবং মনুষ্য সমাজ
  • করোনার ছোবলে জীবন-জীবিকা
  • মানুষ কেন নিমর্ম হয়
  • করোনায় আক্রান্ত শিক্ষা ব্যবস্থা
  • প্রসঙ্গ : ব্যাংকিং খাতে সুদহার এবং খেলাপি ঋণ
  • করোনা, ঈদ এবং ইসলামে মানবতাবোধ
  • ত্যাগের মহিমায় চিরভাস্বর ঈদুল আযহা
  • করোনাকালে শিক্ষার্থীদের প্রত্যাশা
  • আনন্দযজ্ঞে আমন্ত্রণ
  • ত্যাগের মহিমায় কুরবানির ঈদ
  • চাই পথের দিশা
  • ভাটি অঞ্চলের দুর্দশা লাঘব হবে কি?
  • মুক্ত পানির মাছ সুরক্ষায় যা প্রয়োজন
  • উন্নত দেশে মসজিদে গৃহহীনদের আশ্রয়
  • তাইওয়ান সংকট
  • Image

    Developed by:Sparkle IT