প্রথম পাতা পাথরখেকোদের তান্ডব

হুমকির মুখে ভোলাগঞ্জ দশ নম্বরের বিস্তীর্ণ এলাকা

প্রকাশিত হয়েছে: ১৪-০১-২০২০ ইং ০১:২০:২৪ | সংবাদটি ১৬৬ বার পঠিত
Image

সচেতন মহলের সহযোগিতা চাইলেন ইউএনও ॥ লিলাইবাজারে টাস্কফোর্সের অভিযানে ১৭টি শ্যালো মেশিন ধ্বংস


আবিদুর রহমান, কোম্পানীগঞ্জ থেকে ॥ কোম্পানীগঞ্জের ভোলাগঞ্জ পাথর কোয়ারিতে ‘পরিবেশ ধ্বংসকারীদের কোনভাবে নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না। তাদের হাতে এবার ঐতিহ্যবাহী ভোলাগঞ্জ দশ নম্বর এবং ভোলাগঞ্জ গ্রাম ধ্বংসের মুখে পড়েছে। মাস খানেক ধরে দিন-রাত সমানতালে যন্ত্রের সাহায্যে সেখানে পাথর উত্তোলন করা হচ্ছে। অবশ্য, গতকাল সোমবার ওই এলাকায় মাইকিং করে পাথরখেকোদের সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে। একই দিন ধলাই নদীর লিলাইবাজারে টাস্কফোর্স অভিযান চালিয়ে ১৭টি শ্যালো মেশিন ধ্বংস করেছে। অভিযানে পুলিশ-বিজিবির সদস্যরা অংশ নেন।
ভোলাগঞ্জ গ্রামের একটি সূত্র জানিয়েছে, গত কয়েক সপ্তাহ ধরে ভোলাগঞ্জ দশ নম্বর এলাকায় বোমা ও শ্যালো মেশিন বসিয়ে পাথর উত্তোলন করছে একটি চক্র। বর্তমানে সেখানে সচল রয়েছে শতাধিক মেশিন। নদীর পাড়ে খনন করে পাথর উত্তোলন করায় হুমকির মুখে পড়েছে ঐতিহ্যবাহী সরকারি এ স্থাপনা। এরই মধ্যে নদীগর্ভে হারিয়ে গেছে বিরাট এলাকা। স্থানীয়দের মধ্যে বিরাজ করছে ভাঙন আতঙ্ক। যেকোনো সময় দশ নম্বরের বিস্তীর্ণ মাঠ নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাবার আশঙ্কা তাড়িয়ে বেড়াচ্ছে স্থানীয় সচেতন মহলকে।
স্থানীয় লোকজন আরো জানান, ভোলাগঞ্জ দশ নম্বর, ভোলাগঞ্জ আদর্শগ্রাম ছাড়াও ওই এলাকায় ভোলাগঞ্জ স্থল শুল্ক স্টেশন, মসজিদ এবং কাস্টমস অফিসের অবস্থান। ওই এলাকায় অনিয়ন্ত্রিতভাবে পাথর উত্তোলন চলতে থাকলে এসব স্থাপনা নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যেতে পারে।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় কয়েকজন বাসিন্দা জানান, একটি প্রভাবশালী মহলের ছত্রচ্ছায়ায় এখানে পাথর উত্তোলন চলছে। যার কারণে এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগীরা প্রতিবাদ করার সাহস পায় না। ওই শক্তির কাছে স্থানীয় প্রশাসনও ‘অসহায়’ বলে জানান তারা। আর এই শক্তিকে পুঁজি করে নির্বিঘ্নে পাথর উত্তোলন করছে চক্রটি।
এদিকে, পরিবেশ বিধ্বংসী মেশিন বন্ধে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করছে উপজেলা প্রশাসন ও টাস্কফোর্স। কিন্তু, নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না এর ব্যবহার। টাস্কফোর্স সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানান, অভিযানের খবর আগে থেকে পেয়ে যান পাথরখেকোরা। এ কারণে সুফল মিলছে না।
স্থানীয়রা জানান, পরিবেশ দানব বোমা মেশিনের ব্যবহারের ফলে এরই মধ্যে নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে অর্ধশতাধিক বসত ভিটা, বহু একর ফসলি জমি ও অনেক গাছপালা। বিলীন হয়ে গেছে মুুক্তিযোদ্ধাদের জন্য নির্মিত ‘মুক্তিযোদ্ধা আদর্শগ্রাম’। বোমা মেশিন গিলে খেয়েছে এলজিইডি নির্মিত দয়ারবাজার-নতুনবাজার রাস্তা। মসজিদ-মন্দিরও গ্রাস করেছে। এবার ভোলাগঞ্জ দশ নম্বর নদীগর্ভে হারিয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে। এভাবে পাথর উত্তোলন চলতে থাকলে গুরুত্বপূর্ণ এ জায়গাটি মানচিত্র থেকে হারিয়ে যাবে বলে সচেতন মহল মনে করছেন। ২০০৯ সালে বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতির (বেলা) রিটের ফলে বোমা মেশিন দিয়ে পাথর উত্তোলনের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন উচ্চ আদালত। এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করতে সংশ্লিষ্ট প্রশাসন ও পরিবেশ অধিদপ্তরকে টাস্কফোর্স গঠনের নির্দেশ দেওয়া হয়।
স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, পাথর কোয়ারি এলাকায় এক সময় সনাতন পদ্ধতিতে পাথর উত্তোলন চলত। পানিতে নেমে হাত দিয়ে পাথর উত্তোলনের কর্মযজ্ঞে তখন হাজার হাজার পাথর শ্রমিক আর বারকি নৌকার আনাগোনা ছিল। ভোলাগঞ্জের প্রাকৃতিক পরিবেশের কোনো ক্ষতি হয়নি তখন। কিন্তু অতি মুনাফালোভী ব্যবসায়ীদের কারণে ভোলাগঞ্জসহ বিস্তীর্ণ এলাকা বিরানভূমিতে পরিণত হচ্ছে।
নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে ভোলাগঞ্জ পাথর কোয়ারীতে গতকাল সোমবার অভিযান চালিয়েছে টাস্কফোর্স। দুপুর ১ টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত পরিচালিত এ অভিযানে নেতৃত্ব দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমন আচার্য। অভিযান শেষে ইউএনও জানান, পরিবেশ ধ্বংসকারীদের কবল থেকে ভোলাগঞ্জকে রক্ষা করতে হলে এলাকার সকল মহলের সহযোগিতা প্রয়োজন।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুমন আচার্য আরো জানান, যান্ত্রিক উপায়ে পাথর উত্তোলনের ওপর আদালতের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। কিন্তু, এরপরও ভোলাগঞ্জসহ বিভিন্ন কোয়ারিতে যন্ত্রের সাহায্যে পাথর উত্তোলন করা হচ্ছে। তিনি বলেন, পরিবেশ ধ্বংস ঠেকাতে তারা নিজেদের শক্তি সামর্থ্য দিয়ে সাধ্যমত প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন। নিয়মিত টাস্কফোর্সের অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। আদালতের নির্দেশনা অমান্য করার বিষয়ে শিগগিরই আইনানুগ পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে জানান তিনি। গতকাল ভোলাগঞ্জ দশ নম্বরসহ নদীতে যন্ত্রের সাহায্যে পাথর উত্তোলন বন্ধে মাইকিং করা হয়েছে। দুপুরে লিলাইবাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১৭টি শ্যালো মেশিন ধ্বংস করা হয়েছে বলে জানান ইউএনও।

 

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • কোম্পানীগঞ্জ প্রেসক্লাবের জরুরি সভা ও ঈদ পুনর্মিলনী
  • করোনাভাইরাসঃ সিলেটে নতুন আক্রান্ত ১৮ জন, শাবি’র ল্যাবে পরীক্ষা হয়নি আজ
  • বন্যায় প্লাবিত গোয়াইনঘাট , উপজেলা সদরের সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন
  • সাগরদীঘিরপারে প্রাইভেট কার খাদে: আহত ২
  • সুবিদবাজারে দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে যুবক খুন
  • শাবির করোনা শনাক্তকরণ ল্যাব থেকে ঈদের শুভেচ্ছা
  • করোনা: প্লাজমা থেরাপি নিলেন ডা. জাফরুল্লাহ
  • দেশের সব হাসপাতালে হবে করোনার চিকিৎসা
  • ছাতকে বিদুৎস্পৃষ্ট হয়ে শিশুর মৃত্যু
  • ছাতকে ল্যাব টেকনিশিয়ান, স্বেচ্ছাসেবকসহ নতুন করোনা শনাক্ত ৩জন
  • লিডিং ইউনিভার্সিটির পবিত্র ঈদ-উল- ফিতর্ ও জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মদিন উদযাপন
  • সুনামগঞ্জে নতুন করে হোম কোয়ারেন্টাইনে আরও ৩৬ জন
  • দিরাইয়ে বেপরোয়া লেগুনা চাপায় ৪ বছরের শিশু নিহত
  • চীন ও ভারতীয় সেনাদের লাঠি-রডের সংঘর্ষ, উত্তেজনা
  • আরেকটি করোনা ভ্যাকসিন পরীক্ষা করছে যুক্তরাষ্ট্র
  • সিলেটে মার্কেট-শপিং মল খুলছে বুধবার থেকে
  • অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে যমুনায় নৌকাডুবি, নিখোঁজ ৩০
  • এক খুন লুকাতে গিয়ে ৯ জনকে হত্যা!
  • গোলাপগঞ্জে সমাজকর্মী সোহেল আহমদের অকাল মৃত্যু
  • দোয়ারাবাজারে আরো তিন জনের করোনা শনাক্ত
  • Image

    Developed by:Sparkle IT