প্রথম পাতা বড়লেখায় ৫ হত্যাকান্ড

থানায় দুটি মামলা ॥ শেষকৃত্য সম্পন্ন

প্রকাশিত হয়েছে: ২১-০১-২০২০ ইং ০২:৪৩:৫৩ | সংবাদটি ৯৭ বার পঠিত

ঘটনাস্থল পরিদর্শনে ডিআইজি কামরুল আহসান

বড়লেখা (মৌলভীবাজার) থেকে নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ মৌলভীবাজারের পাল্লাতল চা বাগানে নিহত ৫ জনের লাশ ময়নাতদন্ত শেষে গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় বাগান পঞ্চায়েত কমিটির কাছে পাঁচ ব্যক্তির লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে। বাগানের ৮ নম্বর শ্মশান ঘাটে তাদের শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হয়। এদিকে, লোমহর্ষক এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় পাল্লাতল বাগানের সহকারী ব্যবস্থাপক জাকির হোসেন বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামী করে গত রোববার রাতে একটি হত্যা ও একটি অপমৃত্যু মামলা করেছেন।
এদিকে, সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি কামরুল আহসান বিপিএম গতকাল সোমবার বিকেলে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন । এ সময় তাঁর সাথে মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার মো. ফারুক আহমদ, সিলেটের জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার গৌতম দেব, উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান আহমদ জুবায়ের লিটন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
গতকাল বিকেলে সরেজমিনে দেখা গেছে, কাজের দিনেও বাগানে কোনো কর্মচাঞ্চল্য নেই। প্রতিদিনের মত কেউ আর যার যার কাজ করছেন না। চায়ের ফ্যাক্টরিও বন্ধ। চা শ্রমিক পরিবারের লোকজনদের চেহারায় হতাশার ছাপ। লোমহর্ষক এই হত্যাকান্ডের মতো ঘটনা আগে কখনোই দেখেননি বলে জানান, পাল্লাতল চা বাগানের শ্রমিকরা। বিভিন্ন স্থানে জড়ো হয়ে নিজেদের মধ্যে ফিস ফিস করে কথা বলছিলেন নারী চা শ্রমিকেরা। বাগানের ফ্যাক্টরির সামনে কথা হয় পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি কার্তিক কর্মকারের সাথে। তিনি বলেন, ‘হত্যাকান্ডের এই ঘটনাটিতে সকলেই মর্মাহত। সোমবার বাগানের কাজের দিন। কিন্তু ঠিকমতো কেউ কাজে যোগ দেয়নি। শোকে স্তব্ধ হয়ে গেছে সবাই। এই ঘটনাটি ভুলতে পারছে না তারা।
উল্লেখ্য, পারিবারিক কলহের জের ধরে স্ত্রী, শাশুড়ি এবং দুই প্রতিবেশীকে কুপিয়ে হত্যা করেন নির্মল কর্মকার (৩৮) নামের এক ব্যক্তি। এরপর ঘরের তীরের সাথে রশিতে ঝুলে নিজেই আত্মহত্যা করেছেন। গতকাল রোববার ভোররাতে মৌলভীবাজারের বড়লেখার ভারত সীমান্তবর্তী দুর্গম পাহাড়ি এলাকার পাল্লাতল চা-বাগানে এই নৃশংস ঘটনাটি ঘটেছে। হামলায় নিহতরা হচ্ছেন নির্মল কর্মকারের স্ত্রী জলি বুনার্জি (৩০), শাশুড়ি লক্ষ্মী বুনার্জি (৬০), প্রতিবেশী বসন্ত বক্তা (৬০) এবং বসন্ত বক্তার মেয়ে শিউলী বক্তা (১৪)। হামলায় বসন্ত বক্তার স্ত্রী কানন বক্তাও গুরুতর আহত হয়েছেন। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার সময় কোনোরকম পালিয়ে প্রাণে বেঁচে গেছে জলি বুনার্জির আগের স্বামীর পক্ষের মেয়ে চন্দনা বুনার্জি (৯)। সব হারিয়ে বেঁচে যাওয়া চন্দনা এখন বাগানের ফ্যাক্টরি বাবুর পরিবারের আশ্রয়ে আছে। বড়লেখা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. ইয়াছিনুল হক জানান, এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু ও একটি হত্যা মামলা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্ত শেষে পঞ্চায়েত কমিটির কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • সর্বস্তরে বাংলা ভাষা চালুর দাবি
  • মুজিববর্ষে ২শ’ টাকার নোট বাজারে আসছে
  • প্রযুক্তি ভিত্তিক বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার প্রধানমন্ত্রীর
  • গ্লোবাল টেররিজম ইনডেক্সে ৬ ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ
  • সর্বত্র বাংলা ভাষার ব্যবহার বাড়াতে হবে ----দানবীর ড. রাগীব আলী
  • রিজভীসহ আহত ১০
  • গোলাপগঞ্জে হত্যা মামলার আসামী ও বিশ্বনাথে ডাকাত নিহত
  • ছবি
  • সিলেটে প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপিত হবে সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে সাংবাদিকদের এগোতে হবে।
  • রাজনগরে মাদ্রাসা শিক্ষক অজ্ঞান পার্টির খপ্পড়ে তিন লাখ টাকা লুট
  • ছাতকে দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্রী ও নবীগঞ্জে নারীর মৃত্যু
  • ‘ইউএন বাংলা ফন্ট’ চালু করতে যাচ্ছে ইউএনডিপি
  • মহানগরী এলাকায় পলিথিন ব্যাগ বিক্রি ও ব্যবহার বন্ধের আহ্বান সিসিকের
  • অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে বিভিন্ন সংগঠনের কর্মসূচী
  • একুশের প্রথম প্রহরে...
  • মহান একুশ আমাদের জাতিসত্তার অবিচ্ছেদ্য অংশ ॥ পরিকল্পনামন্ত্রী এম.এ.মান্নান এমপি
  • একুশে পদক হস্তান্তর করলেন প্রধানমন্ত্রী
  • সিলেট বোর্ডে গতকালের পরীক্ষায় অনুপস্থিত ৩৩৮ পরীক্ষার্থী
  • এসএসসি পরীক্ষার্থী দুর্বৃত্তের হামলায় আহত
  • বঙ্গবন্ধু’র জন্মশতবার্ষিকতে পূর্বাচলে হচ্ছে ‘বঙ্গবন্ধু চত্বর’
  • Developed by: Sparkle IT