শেষের পাতা

কমলগঞ্জের পাত্রখোলা লেইক অতিথি পাখিদের অভয়াশ্রম

প্রকাশিত হয়েছে: ২৫-০১-২০২০ ইং ০২:১৬:১৪ | সংবাদটি ৫২ বার পঠিত

সুব্রত দেবরায় সঞ্জয়, কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) থেকে : কমলগঞ্জ উপজেলার সীমান্তবর্তী মাধবপুর চা বাগানের ১৮নম্বর সেকশনের পাত্রখোলা লেইক অতিথি পাখিদের অভয়াশ্রমে পরিণত হয়েছে। পাখিদের কলকাকলিতে এখন মুখরিত লেইকটি।
শীতের হিমেল বাতাস। সুনসান চা বাগানের ভেতরে সবুজের এক প্রাকৃতিক স্থান পাত্রখোল কৃত্রিম লেইক। চারদিকে চা বেষ্টিত এ লেকে এখন ফুটে থাকা পদ্ম আর পাখির ওড়াউড়ি। জলকেলি-খুনসুটি যেন চেনা দৃশ্য হয়ে উঠেছে। লেইকটি লোকচক্ষুর অন্তরালে হলেও প্রতিদিন ছুটে আসছেন প্রকৃতিপ্রেমীরা। লেকের সৌন্দর্য্য রক্ষায় বাগান কর্তৃপক্ষ নিয়েছে আলাদা পাহারার ব্যবস্থা। কৃত্রিম এ লেইকটি ঘিরে পর্যটনের অপার সম্ভাবনা দেখছেন স্থানীয়রা।
সরেজমিনে দেখা যায়, চার দিকে উঁচু চা বাগান। এক পাশে উঁচু টিলার বাঁকের লেকে ঝাঁকে ঝাঁকে উড়ে চলা পাখির ডানা ঝাপটানোর শব্দ। নানা বর্ণের ছোট-বড় দেশীয় পরিযায়ী পাখি। সব মিলিয়ে পাত্রখোলা লেইক অভয়াশ্রমে অন্যরকম এক আবহ তৈরি হয়েছে। মাধবপুর সড়ক দিয়ে ফ্যাক্টরীর সামনের রাস্তা দিয়ে চা বাগানের ভেতরে যেতেই দেখা মিলবে পাখিদের। নিজেদের বাঁচার প্রয়োজনে এরা বহু মাইল পথ উড়ে বছরের এ সময়টাতে এখানে আসে। তারপর আবার দুই-আড়াই মাস পর চলে যায়। কেউবা স্থায়ীভাবে থেকেও যায়। পাখিদের মধ্যে রয়েছে কালকোর্ট, পানকৌড়ি, ধণেশ পাখি, সাপ পাখি, মচরংভূতি হাঁস, সাদা বক, লালচে বক, কাললেজ জহুরালীসহ নানা প্রজাতির অতিথি পাখি।
স্থানীয়রা জানান, শীত মৌসুমে থাকে বলে সাধারণত ‘অতিথি পাখি’ বলেই এদের পরিচিতি। পাত্রখোলায় পাখির কিচিরমিচির শব্দ আর ঝাঁক বেঁধে উড়ে বেড়ানো-অন্যরকম সৌন্দর্যে সাজে লেকটি। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত পাখিদের কিচিরমিচির শব্দ আর ঝাঁক বেঁধে উড়ে বেড়ানোর দৃশ্য দেখতে যে কারো ভালো লাগে। বহু মাইল পথ পাড়ি দিয়ে আসা অতিথি পাখিদের বিরক্ত না করতে দর্শনার্থীদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন স্থানীয়রা। পাখি দেখতে আসা মিকন ধর, উজ্জ্বল দেব, সাইফুল ইসলাম, হিমাংশু পালসহ কয়েকজন দর্শনার্থী বলেন, ‘এমন কাছ থেকে দেশের আর কোথাও অতিথি পাখি দেখা যায় কিনা জানিনা। তারা বলেন, অতিথি পাখিদের অবাদ বিচরণের ব্যবস্থা করা হলে দিন দিন আমাদের দেশে পাখির সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে।

 

শেয়ার করুন
শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • শিক্ষকদের নৈতিকতার সর্বোচ্চ মান সবসময় বজায় রাখতে হবে ॥ ভিসি
  • সিলেট-লন্ডন-ম্যানচেষ্টার রুটে সরাসরি ফ্লাইট চালুর বিষয়ে মতবিনিময় সভা কাল
  • ১৬ লাখ জেলে বীমা সুবিধা পাবেন
  • মোবাইল টাওয়ার রেডিয়েশন মাত্রার মধ্যেই : বিটিআরসি
  • সরকারি অগ্রগামী স্কুল এন্ড কলেজে বসন্তবরণ
  • মানবিক বাংলাদেশের জন্য নাট্য ও সংস্কৃতি চর্চার বিকল্প নেই
  • দক্ষিণ সুনামগঞ্জে হাওর রক্ষা বাঁধ পরিদর্শনে জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা
  • নগর গবেষক লেখক ফজলুল হোসেন মীনার জানাজা আজ
  • প্রদর্শনের জন্য এল মেট্রোরেলের ‘রেপ্লিকা’ কোচ
  • ব্যবসায়ীদের অন্য দেশে না ঝোঁকার পরামর্শ চীনা দূতের
  • হবিগঞ্জে সায়হাম গ্রুপের তৈরি পোশাক বিদেশে রপ্তানি হচ্ছে
  • সাবেক সচিব মোফাজ্জল করিমের তিনটি গ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠান আজ
  • সিলেট-সুলতানপুর সড়কের কাজে মন্থরগতি
  • সিলেট বিভাগে অনুপস্থিত ৩৭৯ জন
  • মাদক ব্যবসা করে কোটিপতি
  • নতুন করোনাভাইরাসে তাইওয়ানে প্রথম মৃত্যু
  • সাবেক সংসদ সদস্য রহমত আলী আর নেই
  • সরকারি চাকরিজীবীদের জুন থেকে নতুন সুবিধা
  • করোনাভাইরাস শনাক্তে বাংলাদেশকে কিট উপহার দিল চীন
  • চুনারুঘাটে চা শ্রমিক খুন ॥ আটক দুই
  • Developed by: Sparkle IT