শেষের পাতা ইট প্রস্তুতকারী মালিক সমিতির সম্মেলন

ইট ভাটার অস্তিত্ব রক্ষায় ভাটা মালিকদের ঐক্যের প্রয়োজন ---মিজানুর রহমান বাবুল

প্রকাশিত হয়েছে: ২৬-০১-২০২০ ইং ০৩:০৩:৫৫ | সংবাদটি ৫৬ বার পঠিত

বাংলাদেশ ইট প্রস্তুতকারী মালিক সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি মিজানুর রহমান বাবুল বলেছেন, সারা দেশে ইট ভাটায় প্রায় ২০/২৫ লাখ শ্রমিক জড়িত। আর ভাটার মালিকরা সরকারের কোষাগারে বিপুল পরিমাণ অর্থ ভ্যাট ও রাজস্ব দিয়ে থাকেন। ইট ভাটার মালিকদের উপর জোড় জুলুম মানা হবে না।
গতকাল শনিবার দুপুরে নগরীর বন্দরবাজারের একটি অভিজাত হোটেলে সমিতির সিলেট বিভাগীয় সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
সমিতির কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি হাজী মো. দিলওয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি আরো বলেন, এখন ইট ভাটার মালিকরা অস্তিত্ব সংকটে ভুগছেন। তাই, ভাটা মালিকদের ঐক্যের প্রয়োজন। এজন্য প্রতিটি বিভাগীয় শহরে বিভাগীয় সম্মেলনের পর জাতীয় সম্মেলনের মাধ্যমে জাতীয় ঐক্যের ঘোষণা দেন তিনি।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতির আবু তাহের মো. শোয়েব বলেন, বর্তমান আইনে কৃষি জমিতে ইট ভাটা করা যাচ্ছে না। শুধু ইট ভাটা নয় মিল ইন্ডাস্ট্রিও করা যাচ্ছেনা। ব্যবসায়ীদের দুর্নীতি থেকে দূরে থেকে ব্যবসা চালিয়ে যাবার উপর জোর দেন তিনি।
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ইট প্রস্তুতকারী মালিক সমিতির কেন্দ্রীয় মহাসচিব হাজী মো. আবু বকর, ব্যবসায়ী ও রাজনীতিবিদ হাজী কলন্দর আলী, সিলেট প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি এমএ হান্নান, সমিতির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব হাজী আব্দুল আহাদ, সিলেট চেম্বারের পরিচালক এমদাদ হোসেন, ফালাহ উদ্দিন আলী আহমদ, সমিতির সুনামগঞ্জ শাখার সভাপতি হাজী মো. সামসুল হক, হবিগঞ্জ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মাওলানা কুতুব উদ্দিন, মৌলভীবাজার শাখার সাধারণ সম্পাদক আকবর আলী।
জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মকবুল হোসেনের পরিচালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিলেট ইট মালিক গ্রুপের উপদেষ্টা এমএ হান্নান। বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক হাজী জয়নাল আবেদীন, যুগ্ম মহাসচিব আবুল কালাম আজাদ, প্রবাসী ব্যবসায়ী আখতার হোসেন, নবীগঞ্জ উপজেলা শাখার সদস্য আব্দুল মুহিত চৌধুরী প্রমুখ। শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন ক্বারী আবুল হোসেন।
সভায় বক্তারা আরো বলেন, বর্তমানে দেশের নদনদীগুলো নাব্যতা হারিয়েছে। ভরাট হওয়া নদী খননের জন্য সরকার বিপুল পরিমাণ অর্থ খরচ করছে। ভরাট হওয়া নদী খনন করে ভাটা মালিকদের ইট প্রস্তুতে ব্যবহারের জন্য নদী খননের লীজ দিতে বলেন বক্তারা। মালিকরা তাছাড়া দেশের আইন মেনে পরিবেশ দূষণ হচ্ছে না দাবি করে দীর্ঘমেয়াদী একটি পরিকল্পনা তৈরীর আহ্বান জানান মালিক নেতৃবৃন্দ।

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • এলইউমুনার উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
  • বিয়ানীবাজারে সাংবাদিকদের পিপিই দিলেন শিল্পপতি ফয়সল চৌধুরী
  • হবিগঞ্জে সামাজিক দূরত্ব মানছেন না সাধারণ মানুষ
  • হবিগঞ্জে করোনা পরীক্ষায়৮ জনের রিপোর্ট নেগেটিভ
  • বিয়ানীবাজারে দুঃস্থদের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ
  • জৈন্তাপুরে সর্বদলীয় খাদ্য ফান্ড গঠনের সিদ্ধান্ত
  • আজমিরীগঞ্জের হাওর অঞ্চলে চিকিৎসা সহায়তা
  • জৈন্তাপুরে ব্যবসায়ী জালাল উদ্দিনের পরিবারের উদ্যাগে খাদ্য সহায়তা বিতরণ
  • দিরাইয়ে সামছুল হক চৌধুরীর পক্ষে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
  • খাগড়াছড়িতে সেনাক্যাম্পে চিকিৎসা, আরও ৮ শিশু হাসপাতালে
  • ছবি
  • ছবি
  • ছবি
  • ছবি
  • করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে দেশের সকল জেলায় সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েন
  • সিলেটের চার জেলায় কোয়ারেন্টাইনে ২,১৭৬ জন
  • মহানগর আ’লীগের স্বাধীনতা দিবসের সকল অনুষ্ঠান স্থগিত
  • রাগীব-রাবেয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকদের মধ্যে পিপিইসহ প্রয়োজনীয় সামগ্রী বিতরণ
  • সিলেটেও কাল থেকে বন্ধ থাকবে গণপরিবহন
  • চীনের উহান থেকে লকডাউন উঠছে ৮ এপ্রিল
  • Developed by: Sparkle IT