শেষের পাতা সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানের প্রফেসর হাসান ওয়ায়েজ

সমাজকে অবহেলিত রেখে সুন্দরভাবে জীবনযাপন করা যায় না

প্রকাশিত হয়েছে: ২৬-০১-২০২০ ইং ০৩:১১:৪৯ | সংবাদটি ৪০ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার : ঐতিহ্যবাহী এমসি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ, দেশের বরেণ্য শিক্ষাবিদ প্রফেসর হাসান ওয়ায়েজ বলেছেন, সমাজকে অবহেলিত রেখে সমাজে সুন্দরভাবে জীবনযাপন করা যায় না। তাই, সমাজে শান্তি প্রতিষ্ঠা ও বৈষম্য দূরীকরণে শিক্ষার্থীদের উদ্যোগী হতে হবে। পাশাপাশি দুর্নীতি রোধেও সকলকে সচেষ্ট হতে হবে।
গতকাল শনিবার রাতে দর্শন অনুশীলন সমিতি, সিলেট-এর উদ্যোগে আয়োজিত সম্মাননা প্রদান ২০২০ অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। প্রফেসর হাসান ওয়ায়েজ, এমসি কলেজের দর্শন বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান প্রশান্ত কুমার সাহা এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক মনসুর উদ্দিন আহমদের সম্মানে এ সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়।
নগরীর বারুতখানাস্থ হোটেল গ্র্যান্ড ভিউয়ের হলরুমে সংগঠনের সভাপতি ওয়াহিদ সারোর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রফেসর হাসান ওয়ায়েজ আরো বলেন, ‘ অর্থ সব কিছুর মূলে নয়।’ তিনি বলেন, একজন শিক্ষক সারাজীবন কিছু করতে না পারলে তার শিক্ষার্থীরা যদি সমাজে প্রতিষ্ঠিত হতে পারে এটাই বড় স্বার্থকতা। তিনি বলেন, ‘ছাত্র-ছাত্রীরা আগামী দিনের সবচেয়ে বড় সম্পদ। এই সম্পদের চেয়ে বড় কিছু আমরা চাই না। ’
অধ্যক্ষ হাসান ওয়ায়েজ আরো বলেন, অনেক ত্যাগ-তিতীক্ষার বিনিময়ে অর্জিত হয়েছে আমাদের মহান স্বাধীনতা। কিন্তু, স্বাধীনতা বিরোধী প্রেতাত্মারা এখনো চতুর্দিকে বসে আছে-এদের ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে।
অপর সংবর্ধিত অতিথি অধ্যাপক প্রশান্ত কুমার সাহা বলেন, প্রফেসর হাসান ওয়ায়েজ ছিলেন এমসি কলেজের ইতিহাসে একজন সৎ সাহসী ও দৃঢ়চেতা অধ্যক্ষ। বর্তমানে শিক্ষার্থীদের ক্লাসে অমনোযোগিতার প্রসঙ্গ উল্লেখ করে তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের ক্লাসমুখী করতে হবে। তিনি বলেন, ‘শিক্ষক হিসাবে আমি জীবনে কিছুই করতে পারিনি ; তবে, আমি যা করেছি অনেকেই তা করতে পারেনি। ’ তিনি বলেন, ‘শিক্ষার্থীরা হচ্ছে প্রস্ফুটিত ফুলের মতো। তারাই হচ্ছে আমার সম্পদ।’ এম সি কলেজের বাংলা বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক বীরেশ চক্রবর্তী বলেন, অধ্যক্ষ হিসাবে প্রফেসর হাসান ওয়ায়েজের মতো ‘বুকের পাঠা’ খুব কম লোকেরই ছিল।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এমসি কলেজের বর্তমান অধ্যক্ষ প্রফেসর সালেহ আহমদ বলেন, প্রফেসর হাসান ওয়ায়েজ ছিলেন এমসি কলেজের ইতিহাসে একজন অনন্য প্রিন্সিপাল। তিনি তাঁর সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর হায়াতুল ইসলাম আকঞ্জি বলেন, তাঁর আজকের অবস্থানের পেছনে রয়েছে প্রফেসর হাসান ওয়ায়েজের অবদান। সিলেটের প্রতি তাঁর(হাসান ওয়ায়েজ) বিশেষ দরদ রয়েছে বলে জানান তিনি।
এম সি কলেজের দর্শন বিভাগের সাবেক ছাত্র ইমতিয়াজ বুলবুল ও দক্ষিণ সুরমা কলেজের শিক্ষক রায়হানা হক রানার পরিচালনায় অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন- ছাতক উপজেলা মাধ্যমিক কর্মকর্তা পুলিন রায়, যুক্তরাজ্য প্রবাসী সাংবাদিক গোলাম মোস্তফা ফারুক, সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ। শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন-সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির। পরে এক মনোঞ্জ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

শেয়ার করুন
শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • শিক্ষকদের নৈতিকতার সর্বোচ্চ মান সবসময় বজায় রাখতে হবে ॥ ভিসি
  • সিলেট-লন্ডন-ম্যানচেষ্টার রুটে সরাসরি ফ্লাইট চালুর বিষয়ে মতবিনিময় সভা কাল
  • ১৬ লাখ জেলে বীমা সুবিধা পাবেন
  • মোবাইল টাওয়ার রেডিয়েশন মাত্রার মধ্যেই : বিটিআরসি
  • সরকারি অগ্রগামী স্কুল এন্ড কলেজে বসন্তবরণ
  • মানবিক বাংলাদেশের জন্য নাট্য ও সংস্কৃতি চর্চার বিকল্প নেই
  • দক্ষিণ সুনামগঞ্জে হাওর রক্ষা বাঁধ পরিদর্শনে জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা
  • নগর গবেষক লেখক ফজলুল হোসেন মীনার জানাজা আজ
  • প্রদর্শনের জন্য এল মেট্রোরেলের ‘রেপ্লিকা’ কোচ
  • ব্যবসায়ীদের অন্য দেশে না ঝোঁকার পরামর্শ চীনা দূতের
  • হবিগঞ্জে সায়হাম গ্রুপের তৈরি পোশাক বিদেশে রপ্তানি হচ্ছে
  • সাবেক সচিব মোফাজ্জল করিমের তিনটি গ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠান আজ
  • সিলেট-সুলতানপুর সড়কের কাজে মন্থরগতি
  • সিলেট বিভাগে অনুপস্থিত ৩৭৯ জন
  • মাদক ব্যবসা করে কোটিপতি
  • নতুন করোনাভাইরাসে তাইওয়ানে প্রথম মৃত্যু
  • সাবেক সংসদ সদস্য রহমত আলী আর নেই
  • সরকারি চাকরিজীবীদের জুন থেকে নতুন সুবিধা
  • করোনাভাইরাস শনাক্তে বাংলাদেশকে কিট উপহার দিল চীন
  • চুনারুঘাটে চা শ্রমিক খুন ॥ আটক দুই
  • Developed by: Sparkle IT