শেষের পাতা পৃথক ছিনতাইর ঘটনায় পুলিশের অভিযান

পাঁচ ছিনতাইকারী আটক’ লুন্ঠিত নগদ টাকা, মোবাইল সেট ও মোটর সাইকেল উদ্ধার

প্রকাশিত হয়েছে: ১৭-০২-২০২০ ইং ০৩:১৭:০৩ | সংবাদটি ১৩৮ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার ঃ এসএমপির মোগলাবাজার ও কতোয়ালী থানা পুলিশ পৃথক ঘটনায় ৫ ছিনতাইকারীকে আটক করেছে। একই সাথে লুন্ঠিত মালের মধ্যে লক্ষাধিক টাকা, ১টি মোবাইল ফোন ও ছিনতাইকাজে ব্যবহৃত মোটরসাইকেল ও সিএনজি অটোরিক্সা উদ্ধার করেছে। শনিবার রাতে নগরীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে তাদের আটক করা হয়। মোগলাবাজার থানা পুলিশের হাতে আটককৃতরা হল- শাহপরান থানার কল্লগ্রামের আব্দুস সত্তারের ছেলে সোয়েব আহমদ নয়ন, সুরমা গেটের খায়রুল ইসলামের ছেলে ছায়েদুল ইসলাম আকাশ ও কুশিঘাটের লোকমান মিয়ার ছেলে আলাল হোসেন। অন্যদিকে কতোয়ালী থানার রায়নগর এলাকা হতে ছিনতাইকারী অভিযোগে আটক অপর দুই আসামী হচ্ছে -ছাতকের লাউতলার আব্দুন নুরের ছেলে শফিকুল ইসলাম ও হবিগঞ্জের লাখাউ উপজেলার মুরাপুরি গ্রামের সাবু মিয়ার ছেলে করম আলী। তাদেরকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।
মোগলাবাজার থানার ওসি আখতার হোসেন জানান, গত ২১ জানুয়ারি গুলশানা মরিয়ম নামের এক নারী সিএনজি অটোরিকশাযোগে বিয়ানীবাজার যাওয়ার পথে গোটাটিকর সুন্দরবন কমিউনিটি সেন্টারের উত্তরে ছিনতাইর শিকার হন। মোটর সাইকেলযোগে আসা ছিনতাইকারীরা গুলশানারা মরিয়মের কাছ থেকে ৫টি স্বর্ণের আংটি, ১টি গলার স্বর্ণের চেইন, ২টি হাতের স্বর্ণের বালা, ১ জোড়া স্বর্ণের কানের দুল ও স্যামসাং জে-৩ ও নোকিয়া ২৩০ মডেলের ২টি মোবাইল ছিনিয়ে নেয়। এ ঘটনায় তার ছেলে নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন। মামলার পর পুলিশ অনুসন্ধানে নেমে তাদের আটক ও ছিনতাইকাজে ব্যবহৃত লাল রংয়ের পালসার মোটরসাইকেল উদ্ধার করেন। পরবর্তীতে তাদের দেয়া প্রাথমিক তথ্য মতে, লুন্ঠিত মোবাইল ফোন কল্লগ্রাম হতে উদ্ধার করা হয়। তবে স্বর্ণালঙ্কার উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। মোগলাবাজার থানার এসআই দীপন চন্দ্র সরকার, এসআই রাজীব কুমার রায়সহ পুলিশের একটি ফোর্স তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় অপরাধীদের অবস্থান সনাক্ত করে তাদের আটক করতে সক্ষম হয়।
অন্যদিকে, শনিবার দুপুরে ধোপাদিঘীরপাড়স্থ ওসমানী স্মৃতি জাদুঘরের বিপরীতে আছমা হোটেলের সামনে ১ লাখ ১৬ হাজার টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় ২ চিহ্নিত ছিনতাইকারীকে আটক করে কতোয়ালী থানা পুলিশ। কতোয়ালী থানার ওসি মোহাম্মদ সেলিম মিঞা জানান, ঘটনার পর সোবহানীঘাট পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই বিমল চন্দ্র দে, এসআই বিষ্ণুপদ রায় ও এসআই কামরুল হুদা নাঈম সঙ্গীয় ফোর্সসহ ওইদিন রাতে রায়নগর এলাকা হতে দুই ছিনতাইকারীকে আটক করেন। তাদের কাছ থেকে ছিনতাইকৃত টাকা, ছিনতাইকাজে ব্যবহৃত একটি সিএনজি অটোরিকশা ও ১টি চাকু উদ্ধার করা হয়। আটককৃতরা হচ্ছে, ছাতকের লাউতলার আব্দুন নুরের ছেলে শফিকুল ইসলাম ও হবিগঞ্জের লাখাউ উপজেলার মুরাপুরি গ্রামের সাবু মিয়ার ছেলে করম আলী। ছিনতাইয়ের ঘটনার কদমতলীর কুইন্স টাওয়ারে মশিউর রহমান বাদী হয়ে রোববার মামলা করেছেন।

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • হেতিমগঞ্জ ও বাঘা ইউনিয়নে এলিম চৌধুরীর খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
  • বৃটিশ বাংলাদেশ টেক্সি এসোসিয়েশনের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
  • দোয়ারাবাজারে একমাসের দোকানভাড়া মওকুফ
  • এলইউমুনার উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
  • বিয়ানীবাজারে সাংবাদিকদের পিপিই দিলেন শিল্পপতি ফয়সল চৌধুরী
  • হবিগঞ্জে সামাজিক দূরত্ব মানছেন না সাধারণ মানুষ
  • হবিগঞ্জে করোনা পরীক্ষায়৮ জনের রিপোর্ট নেগেটিভ
  • বিয়ানীবাজারে দুঃস্থদের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ
  • জৈন্তাপুরে সর্বদলীয় খাদ্য ফান্ড গঠনের সিদ্ধান্ত
  • আজমিরীগঞ্জের হাওর অঞ্চলে চিকিৎসা সহায়তা
  • জৈন্তাপুরে ব্যবসায়ী জালাল উদ্দিনের পরিবারের উদ্যাগে খাদ্য সহায়তা বিতরণ
  • দিরাইয়ে সামছুল হক চৌধুরীর পক্ষে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
  • খাগড়াছড়িতে সেনাক্যাম্পে চিকিৎসা, আরও ৮ শিশু হাসপাতালে
  • ছবি
  • ছবি
  • ছবি
  • ছবি
  • করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে দেশের সকল জেলায় সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েন
  • সিলেটের চার জেলায় কোয়ারেন্টাইনে ২,১৭৬ জন
  • মহানগর আ’লীগের স্বাধীনতা দিবসের সকল অনুষ্ঠান স্থগিত
  • Developed by: Sparkle IT