তৃতীয় পাতা

ট্রাইব্যুনাল না সরাতে আইন মন্ত্রণালয়ের চিঠি

ডাক ডেস্কঃ প্রকাশিত হয়েছে: ৩১-১০-২০১৬ ইং ০৪:০৮:১০ | সংবাদটি ৩৪৫ বার পঠিত

 একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধীদের বিচারে পুরোনো হাইকোর্ট ভবনে স্থাপিত আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল সরানো ঠিক হবে না বলে মনে করছে আইন মন্ত্রণালয়। ট্রাইব্যুনাল সরিয়ে নিলে জনমনে ক্ষোভের সৃষ্টি হবে বলে মনে করে এ মন্ত্রণালয়।
এ কারণে আইন মন্ত্রণালয় এই ভবনটি সুপ্রিম কোর্টের অনুকূলে দখল হস্তান্তরের বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করতে সুপ্রিম কোর্টের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে। গতকাল রোববার আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রারের কাছে চিঠি দিয়ে এ অনুরোধ করা হয়। এর আগে সুপ্রিম কোর্ট কর্তৃপক্ষ এই ভবন থেকে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল সরিয়ে নিতে আইন মন্ত্রণালয়কে চিঠি দিয়েছিল।
আইন মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সহকারী সচিব তৈবুল হাসান স্বাক্ষরিত একটি চিঠি রোববার সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেলের কার্যালয়ে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে বলে মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. রেজাউল করিম জানিয়েছেন।
চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘যুদ্ধাপরাধীদের বিচার কার্যক্রম বন্ধ করে’ পুরনো হাই কোর্ট ভবনটি সুপ্রিম কোর্টের কাছে হস্তান্তর করা হলে বর্তমান প্রেক্ষাপটে তা সর্বজনগ্রাহ্য হবে না; বরং ‘বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট দেশবাসীর কাছে প্রশ্নবিদ্ধ হবে’।
গত ১৮ আগস্ট আইন মন্ত্রণালয়কে চিঠি দিয়ে পুরনো হাই কোর্ট ভবন থেকে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল সরিয়ে নিতে বলে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন।
সুপ্রিম কোর্টের ওই চিঠিতে বলা হয়, স্থানাভাবে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের প্রয়োজনীয় চেম্বার ও এজলাসের ব্যবস্থা করা যাচ্ছে না। তাছাড়া সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্যও প্রয়োজনীয় অফিসের ব্যবস্থা করা যাচ্ছে না।
বিষয়টি নিয়ে প্রধান বিচারপতি ও আইনমন্ত্রীর সঙ্গে ‘মৌখিক আলোচনার’ কথা জানিয়ে ৩১ অক্টোবরের মধ্যে ভবনটি হস্তান্তরের ব্যবস্থা নিতে বলা হয় সুপ্রিম কোর্টের চিঠিতে।
ওই সময় শেষ হওয়ার আগের দিন আইন মন্ত্রণালয়ের পাঠানো চিঠিতে ভবনটির ঐতিহাসিক গুরুত্বের পাশাপাশি যুদ্ধাপরাধের বিচার ও ‘জানগণের মনোভাব’ তুলে ধরে সুপ্রিম কোর্টকে বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করতে বলা হয়।   
এতে বলা হয়, পুরাতন হাই কোর্ট ভবনটি বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী ও ঐতিহাসিক একটি স্থাপনা। পূর্ব বাংলা ও আসাম প্রদেশের গভর্নরের সরকারি বাসভবন হিসেবে এ ভবন নির্মাণ করা হয়েছিল। পরে তা পূর্ব পাকিস্তানের হাই কোর্টে রূপান্তর করা হয়। ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় সংঘটিত অপরাধসমূহ, যেমন যুদ্ধাপরাধ, গণহত্যা, ধর্ষণ, মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ, শান্তির বিরুদ্ধে অপরাধসহ অন্যান্য অপরাধের সঙ্গে জড়িতদের বিচারকাজ পরিচালনা করার জন্য বর্তমান সরকার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। এর ধারাবাহিকতায় অন্য কোথাও নিরাপদ স্থাপনা না পাওয়ার কারণে সরকার শেষ পর্যন্ত উক্ত ভবনটিকে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল হিসাবে ব্যবহার করছে।
২০০৯ সালে এ ভবনের একটি অংশ আইন কমিশন এবং অপর অংশে বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশনের অফিস হিসাবে ব্যবহৃত হয়ে আসছিল। সে সময় ভবনের রক্ষণাবেক্ষণ সঠিকভাবে হচ্ছিল না। তখন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল স্থাপন করার জন্যও জায়গা খোঁজা হচ্ছিল। নিরাপত্তার দিকটি বিবেচনায় এনে এ ভবনটি সবচেয়ে নিরাপদ বিবেচিত হওয়ায় এখানে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল স্থাপন করা হয়।
ট্রাইব্যুনাল কাজ শুরু করলে এই ভবন থেকে আইন কমিশন ও বাংলাদেশ জুডিসিয়াল সার্ভিস কমিশনের অফিস চলে যায় কলেজ রোডের নতুন ঠিকানায়। এর পর থেকে এ ট্রাইব্যুনালে ‘অনেক কুখ্যাত যুদ্ধাপরাধীর’ বিচার সম্পন্ন হওয়ায় ভবনটির ‘ঐতিহ্য আরও বৃদ্ধি পেয়েছে’ বলে আইন মন্ত্রণালয়ের ভাষ্য।
চিঠিতে বলা হয়, বাংলাদেশের জনগণ চায়, এ ভবনটি ঐতিহাসিক স্থাপনা হওয়ায় সে মর্যাদা সমুন্নত রেখে ভবনটিকে সংরক্ষণ করা হোক এবং ট্রাইব্যুনাল এখান থেকে সরানো না হোক। এটা সরানো হলে জনমনে ক্ষোভের সৃষ্টি হবে এবং দেশের সঠিক উন্নয়নের ধারাবাহিকতার ক্ষেত্রে তা প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করবে। ফলে ভবন দখল হস্তান্তর করার বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করার জন্য আপনাকে নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হল।

শেয়ার করুন
তৃতীয় পাতা এর আরো সংবাদ
  • গোয়াইনঘাটে যুবলীগের কর্মী সম্মেলন শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে যুবলীগ কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে ----------ইমরান
  • ট্রাইব্যুনাল না সরাতে আইন মন্ত্রণালয়ের চিঠি
  • সিলেট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন আজ
  • গোগালীছড়া নদীর ইজারা বাতিলের দাবিতে নাগরিক সভা
  • দিরাইয়ে সাবেক পৌর মেয়রের পিতামহের ইন্তেকাল
  • জৈন্তাপুরে সারীঘাট ট্রাক চালক সমিতির দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত
  • মইন উদ্দিন আদর্শ মহিলা কলেজে সমাপনী অনুষ্ঠান সম্পন্ন
  • কামাল উদ্দিন স্মৃতি বৃত্তি পরীক্ষা পরিদর্শনে রোটারী সেন্ট্রাল নেতৃবৃন্দ
  • শিশু নির্যাতন ও বাল্য বিবাহ বন্ধসহ শিশু অধিকার রার্থে ও এনসিটিএফ কার্যক্রম অবহিতকরণ সভা
  • ওসমানীনগরে মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান
  • বিশ্বনাথ প্রেসকাবের মাসিক সভা অনুষ্ঠিত
  • ২৭নং ওয়ার্ডের পৈত্যপাড়ায় শ্যামা পূজা ২৯ অক্টোবার
  • সংরক্ষণে ‘প্রাধিকার’র কাজ প্রশংসনীয়
  • আজ সিলেট ট্যুরিস্ট কাব’র বর্ষপূর্তি র‌্যালি ও আলোচনা
  • প্রাণ-আরএফএল পাবলিক স্কুলে হাত ধোয়া কর্মসূচি পালিত
  • মৌলভীবাজারে জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্টের প্রতিবাদ সভা
  • এমসি কলেজ তালমীযের কাউন্সিল সম্পন্ন
  • প্রাথমিক শিক্ষা পদকের চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছেন বিয়ানীবাজারের আউয়াল
  • লাখাইয়ে মদসহ ৩ জন গ্রেফতার
  • জিন্দাবাজার মিতালী ম্যানশনে দু’টি পানির লাইন নিয়ে অভিযোগ
  • Developed by: Sparkle IT