প্রথম পাতা

ছিন্নমুল মানুষের কথা ভাবছেনা কেউ

নূর আহমদ: প্রকাশিত হয়েছে: ২৫-০৩-২০২০ ইং ১৬:৫৪:০৯ | সংবাদটি ১১০ বার পঠিত


করোনা ভাইরাস আতংকে লোকজন যখন হু হু করে শহর ছাড়ছে, তখন নির্বিঘ্নে সড়কের ফুটপাতেই শুয়ে আছেন এক মা। পাশে ঘুরাফেরা করছে ৩/৪ জন শিশু। তাদের যেন কোথাও যাওয়ার জায়গা নেই। ছবির এই দৃশ্যটি নগরীর ব্যস্ততম এলাকা জিন্দাবাজারের। করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচার জন্য এই দৌড়ঝাঁপের ভিড়ে এসব ছিন্নমুল মানুষের পাশে দাঁড়ানোর যেন কেউ নেই। সবাই ব্যস্ত নিজেদের নিয়ে। এই পরিস্থিতিতে তাদের সহযোগিতায় এগিয়ে আসছে না সরকারের কোন দপ্তর।


বিশ্ব কাঁপানো করোনা ভাইরাস এর সংক্রমণ থেকে বাঁচার জন্য সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে চলছে ব্যাপক প্রচার প্রচারণা। সবচেয়ে বেশি হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে। টেলিভিশনের পর্দায় একটু পরপরই প্রচার হচ্ছে করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচার নানা কলা কৌশল। আবার হাতে হাতে স্মার্ট ফোনে ফেইসবুকে দিক নির্দেশনা পেয়ে যাচ্ছেন তরুণ প্রজন্ম। কিন্তু পথের মাঝে বেড়ে ওঠা যাদের টেলিভিশন কিংবা ফেইসবুক দেখার সুযোগ নেই সেইসব ছিন্নমুল মা ও শিশুদের সচেতন করবে কে?


সরেজমিনে নগরীর বন্দর বাজার, জিন্দাবাজার, ক্বীনব্রিজ এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, অনেক পথ শিশু প্রতিদিনের মত ঘোরাফেরা করছে। বন্দরবাজারের ওভারব্রিজে কেউ ঘুমাচ্ছে, আবার কেউ কেউ বসে খুনসুটিতে ব্যস্ত । তাদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, পথ শিশুদের বেশির ভাগই ভিক্ষাবৃত্তি কিংবা কাগজ/ প্লাস্টিক কুঁড়াতে ব্যস্ত থাকতো। কিন্তু করোনা ভাইরাস আতংকে নগরীতে জনসাধারণের উপস্থিতি কমে যাওয়ায় অলস সময় পার করছে তারা। নগরীর বিভিন্ন বিপনী বিতানগুলো বন্ধ থাকায় কাগজ কিংবা প্লাস্টিক কুঁড়ানোও হচ্ছে না তাদের।


এদিকে সবচেয়ে বেশি খারাপ সময় সামনে অপেক্ষা করছে ছিন্নমুল মানুষের। গত ২/৩ দিন থেকে সন্ধ্যা হলেই নিরবতা নেমে আসে শহর জুড়ে। যে শহর গভীর রাত পর্যন্ত জেগে থাকতো ; সে শহর যেন সন্ধ্যা নামার আগেই ঘুমিয়ে পড়ছে। সেই রাতে বিভিন্ন মার্কেটের সামনই হয় তাদের ঠিকানা। তাও আবার সব মার্কেটের সিকিউরিটি গার্ডরা তাদের বসতে দেয় না। এর মধ্যে সামরিক বাহিনী নামছে পথে। পুলিশ তো আর আছেই। এই পরিস্থিতিতে চরম বিপাকে ছিন্নমুল মানুষেরা।


নগরীর জিন্দাবাজার পয়েন্টে শুয়ে থাকা ছমিরুন বেগম, এই বলে আমাদের আবার ঘর বাড়ি কই, এই ফুটপাতে একটু নিরবে ঘুমাতে দিলেই হল। করোনা ভাইরাস নিয়ে কোন আতংক কাজ করে কি না জানতে চাইলে ছমিরুন বলেন, ‘এসব রোগ বড় লোকের হবে, আমাদের কাছে আসবে না।’
কবির নামের ৮/১০ বছরের এক শিশু বলে, কেউ বাসা থেকে বের না হলে আমরা খাবার পাবো কই। এমনিতে কারো কাছে হাত পাতলে অল্প দু-একটা টাকা দিতো। এখন না পেলে আর কী হবে, না খেয়ে থাকবো।


এ ব্যাপারে সুজন সিলেট চ্যাপ্টারের সভাপতি ফারুক মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ছিন্নমুল মানুষেরও বাাঁচার অধিকার আছে। এদের সচেতন করার জন্য তরুণদের অনেকেই এগিয়ে আসছে, তবে তাদের জন্য সবচেয়ে জরুরী খাবার সরবরাহ। এক্ষত্রে সরকারি উদ্যোগে পৃথক পৃথক স্থানে লঙ্গরখানা খুলে খাবারের ব্যবস্থা করা যেতে পারে। যাতে ৩ বেলা খাবার পায় তারা। তিনি বলেন, রাষ্ট্রযন্ত্রকে এদের নিয়ে ভাবতে হবে। একই সাথে তাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় সমাজের প্রত্যেক সচেতন মানুষকে এগিয়ে আসা প্রয়োজন।


সিলেট জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ পরিচালক নিবাস চন্দ্র দাস জানান,বিভিন্ন সময়ে ছিন্নমুল মানুষকে সরকারি প্রতিষ্ঠানে নিয়ে আসার অনেক চেষ্টা করা হয়েছে, তারা থাকতে চায় না। করোনা ভাইরাস বিষয়ে পথে পথে গিয়ে তাদের নিজ বাড়িতে চলে যাওয়ার আহবান জানানো হয়েছে। এরপরও যাদের একেবারেই কোন উপায় থাকবে না, তাদের পাশে থাকবে জেলা সমাজসেবা কার্যালয়।

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • ছাতকের সন্দেহজনক ব্যাক্তির রেজাল্ট আসবে কাল
  • দেশে করোনায় নতুন করে আক্রান্ত ৫, নেই কোনো মৃত্যু
  • ফের মৃত্যুর রেকর্ড গড়ল যুক্তরাষ্ট্র
  • নবীগঞ্জে ত্রাণ নিয়ে আওয়ামী লীগের গ্রুপে উত্তেজনা
  • দোয়ারাবাজারে ভারতীয় মদসহ একজন আটক
  • জগন্নাথপুরে ওমান প্রবাসীসহ জনের নমুনা সংগ্রহ, এলাকায় আতঙ্ক
  • করোনার আঘাতে এবার রেমিট্যান্সে ভাটা
  • এডিবি কোভিড-১৯ এর কারণে দক্ষ প্রশিক্ষণার্থী ঝরে পড়া রোধে ১.৩৪ মিলিয়ন ডলার দিচ্ছে
  • করোনাভাইরাস সঙ্কটে বিশ্বজুড়ে খাবারের দাম কমেছে: জাতিসংঘ
  • বাংলাদেশে আটকে পড়া ব্রিটিশ নাগরিকদের জন্য ডিকসনের ৪ বার্তা
  • দিরাইয়ে জেলা প্রশাসনের অভিযান ॥ জরিমানা আদায়
  • ডেঙ্গু মোকাবেলায় শক্তিশালী স্টিয়ারিং কমিটি গঠন করা হবে : এলজিআরডি মন্ত্রী
  • দিল্লির তাবলিগ জামাতে যোগ দেওয়া তিন বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত
  • নগরীতে এসএমপি’র খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত
  • দিরাইয়ে এমপি’র আহবানে দরিদ্রদের পাশে সাবেক মেয়র
  • মক্কা-মদিনা লকডাউন, অনির্দিষ্টকালের জন্য কারফিউ
  • অ্যামাজনের আদিবাসী তরুণীর শরীরে করোনা, বড় বিপদের আশঙ্কা
  • ফসল উৎপাদন অব্যাহত রাখার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে: কৃষিমন্ত্রী
  • করোনায় শুধু মেসিদের লিগেই ৮৯ হাজার কোটি টাকার ক্ষতি!
  • রোববার থেকে সীমিত পরিসরে ডাকঘর খোলা
  • Developed by: Sparkle IT