শেষের পাতা

হজ নিয়ে আশার আলো, ১৫ জুনের মধ্যে সৌদির সিদ্ধান্ত

ডাক ডেস্ক : প্রকাশিত হয়েছে: ০২-০৬-২০২০ ইং ১৩:০২:০৭ | সংবাদটি ২২৯ বার পঠিত
Image

ভয়াবহ করোনাভাইরাসের কারণে এবছর পবিত্র হজ অনুষ্ঠান নিয়ে সৃষ্ট অনিশ্চয়তা কেটে যাচ্ছে। করোনা সংক্রমণের বিস্তার রোধে আরোপিত বিধিনিষেধ শিথিল করে দুই মাসেরও বেশি সময় পর সৌদি আরবের মসজিদগুলো খুলে দেয়ায় হজ নিয়ে আশার আলো দেখছেন সংশ্লিষ্টরা। এ বিষয়ে ১৫ জুনের মধ্যে দেশটির সিদ্ধান্ত আসতে পারে বলে জানিয়েছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মো. আব্দুল্লাহ।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, গত রোববার থেকে সৌদি আরবে পবিত্র কা’বা শরীফ ও মসজিদুন নববীসহ সব মসজিদের দ্বার নামাজ পড়ুয়াদের জন্য ফের উন্মুক্ত করে দেয়া হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে আসন্ন হজ পালনের দ্বার খুলতে যাচ্ছে বলে মনে করছেন বাংলাদেশের হজ সংশ্লিষ্টরা।

এ প্রসঙ্গে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মো. আবদুল্লাহ সোমবার বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে পবিত্র হজের কেন্দ্রবিন্দু সৌদি আরবের পবিত্র কা’বা এবং মসজিদুন নববী সাধারণ মুসুল্লীদের জন্য বন্ধ রেখেছিল সৌদি সরকার। দুই মাসের বেশি সময় পর গত রোববার তা আবার সীমিত আকারে খুলে দিয়েছে বলে জেনেছি। আমরাও আসন্ন হজের জন্য নিবন্ধনসহ সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়ে বসে আছি।

তিনি বলেন, এ বছর বাংলাদেশসহ বর্হিবিশ্বের হজযাত্রীরা হজ পালন করতে পারবে কিনা তা নির্ভর করছে করোনা পরিস্থিতির ওপর। সব বিষয় বিবেচনা করে সে সিদ্ধান্ত নেবে সৌদি সরকার। আমরা আশা করছি এ ব্যাপারে তারা আগামী ১৫ জুনের মধ্যে আমাদের সিদ্ধান্ত জানাবে। তাদের সিদ্ধান্ত পাওয়া মাত্রই বাংলাদেশ প্রয়োজনীয় কার্যক্রম শুরু করবে।

এখন পর্যন্ত ৬৬ হাজার যাত্রী চলতি বছর হজের জন্য নিবন্ধন করেছেন বলেও জানান ধর্ম প্রতিমন্ত্রী।

উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ এড়াতে গত ২৬ ফেব্রুয়ারি সৌদি আরব বিদেশিদের ওমরাহর অনুমতি দেওয়া এবং পরে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচল অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করে। এরই ধারাবাহিকতায় পুরো দেশ লকডাউন করা হয়। এ কারণে গত মাসে এখনই হজের পরিকল্পনা চূড়ান্ত না করে পরিস্থিতি স্পষ্ট না হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করার পরামর্শ দেয় সৌদি আরব।

এর আগে করোনা পরিস্থিতির কারণে অনিশ্চয়তার মধ্যেও হজের আগাম প্রস্তুতির অংশ হিসেবে আগ্রহীদের নিবন্ধন কার্যক্রম চালায় ধর্ম মন্ত্রণালয়। ২ মার্চ থেকে শুরু হওয়া নিবন্ধন কার্যক্রমের মেয়াদ কয়েক দফা বাড়িয়ে ৩০ এপ্রিল শেষ করা হয়।

সৌদি আরব সরকারের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী এ বছর বাংলাদেশ থেকে এক লাখ ৩৭ হাজার ১৯৮ জনের হজে যাওয়ার সুযোগ পাওয়ার কথা। এরমধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ১৭ হাজার ১৯৮ জন এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় এক লাখ ২০ হাজার জন। কিন্তু করোনা আতঙ্কের কারণে নিবন্ধনে তেমন সাড়া না পড়ায় এবারের পূর্ব নির্ধারিত কোটা পূরণ হয়নি।

নিবন্ধন সার্ভার সূত্রমতে, ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত সরকারি ব্যবস্থাপনায় তিন হাজার ৪৫৭ জন এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৬১ হাজার ১৪২ জন নিবন্ধন সম্পন্ন করেছেন।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ৩০ জুলাই অর্থাৎ ৯ জিলহজ এবারের হজ অনুষ্ঠিত হবে। সে অনুযায়ী ২৩ জুন হজ ফ্লাইট শুরুর আশা প্রকাশ করেছিল ধর্ম মন্ত্রণালয়।

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • জেলা ডেকোরেটার্স মালিক সমিতির মানববন্ধন কাল
  • লাখাইয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা
  • জগন্নাথপুর চিলাউড়া সড়ক রক্ষায় স্বেচ্ছাশ্রমে এলাকাবাসী
  • করোনাকালে ডাক্তার মধুসূদন ধরের মানবিক সেবায় মুগ্ধ জগন্নাথপুরবাসী
  • বিএনপি নেতা আব্দুল মান্নান পুতুলের মৃত্যুতে মহানগর বিএনপির শোক
  • র‌্যাবের পৃথক অভিযানে চোরাই পণ্য ও মাদক উদ্ধার ॥আটক ২
  • সদর উপজেলায় বৃক্ষ রোপণের উদ্বোধন করলেন এডভোকেট নাসির উদ্দিন খান
  • বন্দরবাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে জীবাণু নাশক টানেলের উদ্বোধন করলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন
  • সিলেট-সুনামগঞ্জের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত ॥ দুর্ভোগ চরমে
  • দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শনে বস্ত্র ও পাট সচিব লোকমান হোসেন মিয়া
  • বিনামূল্যে পরীক্ষার সংখ্যা আরো ব্যাপকভাবে বাড়ানোর উদ্যোগ নিন : টিআইবি
  • বেসরকারি ৫ লাখ শিক্ষক-কর্মচারি মানবেতর জীবন যাপন করছে ..... জাতীয় শিক্ষক ফোরাম
  • বৃষ্টি উপেক্ষা করে প্রতীকী অনশন ওসমানীর ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারীদের
  • ড. এনামুল হক চৌধুরীর পিতার মৃত্যুতে মির্জা ফখরুলের শোক
  • ত্রাণ এবং স্বাস্থ্যখাতে দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে অভিযান জোরদার করা হবে : দুদক চেয়ারম্যান
  • সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে দৈনন্দিন কাজ অব্যাহত রাখতে হবে : ডেপুটি স্পিকার
  • করোনা: সিলেট বিভাগে সুস্থ দুই সহস্রাধিক
  • দোয়ারাবাজারে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক
  • কুলাউড়ায় গৃহবধূর লাশ উদ্ধার
  • খানাখন্দে ভরা মৌ’বাজারের সরকার বাজার ও গোপলার বাজার সড়ক
  • Image

    Developed by:Sparkle IT