প্রথম পাতা

‘ভয়ঙ্কর’ মানবপাচারকারী বিশ্বনাথের রফিক দীর্ঘদিন পর বন্দি র‌্যাবের জালে ॥ রয়েছে ৫ মামলা

বিশ্বনাথ (সিলেট) থেকে এমদাদুর রহমান মিলাদ ঃ প্রকাশিত হয়েছে: ০৩-০৬-২০২০ ইং ০১:৪৪:৪১ | সংবাদটি ৪৫৪ বার পঠিত
Image

লিবিয়ার ‘ভয়ঙ্কর’ মানবপাচারকারী চক্রের অন্যতম সদস্য বিশ্বনাথের দালাল রফিক ইসলামকে (৫৮) অবশেষে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-৯ এর সদস্যরা। গত সোমবার বিকেলে নিজ বাড়ি থেকেই তাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। এরপর গতকাল মঙ্গলবার তাকে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ (এসএমপি)-এর জালালাবাদ থানায় হস্তান্তর করা হয়।
রফিক উপজেলার রামপাশা ইউনিয়নের কাঠলীপাড়া গ্রামের মৃত চমক আলীর পুত্র। তার বিরুদ্ধে ৫টি মানবপাচার মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব। দালাল রফিকের মাধ্যমে স্বপ্নের দেশ ইতালীর পথে গিয়ে গত বছরের মে মাসে ভুমধ্যসাগরে ডুবে মারা যায় অনেক সিলেটী যুবক।
অভিযোগ রয়েছে, সব জেনে-শুনেই হাসিমুখে তরতাজা যুবকদের ইউরোপে পাড়ি দেয়ার স্বপ্ন দেখিয়ে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেয় রফিক। এরপরও লিবিয়া পৌঁছালে জিম্মি করা হতো যুবকদের। বন্দি থাকা স্বজনের মৃত্যু ঠেকাতে সিলেটের রফিকের হাতেই তুলে দেয়া হয় মুক্তিপণের টাকা। সেই টাকা রফিক হুন্ডির মাধ্যমে পাঠাতো লিবিয়া। সেখানে রয়েছে তার ছেলে পারভেজ। সে লিবিয়ার মানবপাচারকারী মাফিয়াদের একজন। তার মাধ্যমেই বাংলাদেশে মানবপাচার চক্র গড়ে তুলে রফিক।
স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা বলে জানা গেছে, প্রায় ৮ বছর আগে ছেলে পারভেজকে লিবিয়া পাঠান রফিক। পারভেজ লিবিয়া গিয়ে মানবপাচার চক্রের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ে এবং সেখানে ‘থিতু’ ছদ্ম নামে সে পরিচিত হয়ে যায়। লিবিয়াতে বসে বাংলাদেশের নেটওয়ার্কের পুরোটাই নিয়ন্ত্রণ করে পারভেজ। সে দেহরক্ষী নিয়ে ঘুরে। সিলেট থেকে পাচার করা মানুষ গেলে সে প্রায়ই তাদের সাথে দেখা করে। জিম্মিকালে পরিবারকে টাকা দিতে চাপ প্রয়োগ করে। ছেলের সূত্র ধরে সিলেটে মানবপাচারের নেটওয়ার্কের বিস্তৃতি ঘটায় রফিক। সে প্রথমে বিদেশ যেতে ইচ্ছুক মানুষ সংগ্রহ করতো। পরে সে মানুষ নিয়োগ করে। বিভিন্ন এলাকায় তার নিয়োজিত এজেন্টরা এই কাজ করতো। আর বিদেশে পাচারের বিষয়টি দেখভাল করতো রফিকের মেয়ে পিংকি। তার একাউন্টেই লেনদেন হয় দালালীর বিপুল অর্থ।
রফিক ও ছেলে পারভেজের সিন্ডিকেটের কবলে পড়ে ২০১৯ সালের মে মাসে স্বপ্নের দেশ ইতালী যাওয়ার পথে ভুমধ্যসাগরে নৌকা ডুবে মারা যায় বিশ্বনাথের যুবক রেজওয়ানুল ইসলাম খোকন’সহ সিলেটী অনেক যুবক। ভূমধ্যসাগর ট্র্যাজেডির পর রফিক, তার ছেলে পারভেজ ও মেয়ে পিংকি’সহ দালালচক্রের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় ৫টি মামলা দায়ের করা হয়। এর মধ্যে বিশ্বনাথ থানায় মামলা করেছিলেন মারা যাওয়া খোকনের ভাই রাজু। এছাড়া, হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে রানা নামে আরো একজন মামলা করেন। এর বাইরে জালালাবাদ, দক্ষিণ সুরমা থানায় আরো একটি করে মামলা রয়েছে।
মামলা দায়েরের পরই এলাকা থেকে সপরিবারে পালিয়ে যায় রফিক।
২০১৯ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর পিংকিকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। গ্রেফতারের পর পিংকির কাছ থেকে রফিক, পারভেজ ও পিংকির মানবপাচারের নেটওয়ার্ক জানতে পারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এক বছর কারাগারে থাকার পর সম্প্রতি ঈদের আগে জামিনে মুক্তি পায় পিংকি। স্থানীয় লোকজন ও ভুক্তভোগীরা ইতিমধ্যে রফিক ও তার পরিবারের মানবপাচারের অনেক তথ্য পেয়েছেন। মিলেছে মানবপাচারের ভয়ঙ্কর তথ্য। মানবপাচারের নির্মম ঘটনায় টাকাওয়ালা বনে যাওয়া রফিক নিজ গ্রামে বানিয়েছে পাকা বাড়ি। হয়েছে দুটি বাস, দুটি মাইক্রোবাস ও তিনটি সিএনজি অটোরিক্সার মালিক।
এদিকে, মামলা দায়েরের পর ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে পালিয়ে ছিলো রফিক। সেখানে বসেই দেশজুড়ে মানবপাচারের নেটওয়ার্ক গড়ে। ঈদ পালন করতে সম্প্রতি বাড়িতে আসে রফিক। গত সোমবার বিকেলে নিজ বাড়ি থেকেই তাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। এরপর গতকাল মঙ্গলবার তাকে জালালাবাদ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-৯ এর এএসপি (মিডিয়া অফিসার) ওবাইন। তিনি জানান, রফিকের বিরুদ্ধে বিশ্বনাথ থানায় তিনটি এবং জালালাবাদ ও দক্ষিণ সুরমা থানায় একটি করে মামলা রয়েছে। রফিক ছাড়াও মানবপাচার মামলার আসামী তার স্ত্রী বর্তমানে পলাতক রয়েছে। আর মেয়ে পিংকি বর্তমানে জামিনে রয়েছে।
বিশ্বনাথের ওসি শামীম মুসা জানান, রফিক একজন ভয়ঙ্কর মানবপাচারকারী। তার বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা তদন্ত করতে গিয়ে তার ব্যাপারে অজানা অনেক তথ্য বেরিয়ে এসেছে বলে জানান এ পুলিশ কর্মকর্তা।
এদিকে, স্বজন হারানো শোকার্ত পরিবারগুলোর চোখ এখনও সরছে না দালাল রফিক চক্রের উপর থেকে। তাদের গতিবিধির দিকেও নজর রাখছে তারা। আর যাতে কোনো মায়ের কোল খালি না হয় সে কারণে তাদের এই নজরদারি।
ভুমধ্যসাগরে চিরতরে হারিয়ে যাওয়া রেজওয়ানুল ইসলাম খোকনের ভাই রেজাউল ইসলাম রাজু জানান, আমরা জান ও মাল সব হারালাম। এখন বাকি শুধু বিচার। এই বিচার হলেই আমরা খুশী হবো। আমরা চাই আর কোনো মায়ের কোল যেনো খালি না হয়।

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • করোনাকাল দীর্ঘ হলে দারিদ্র্য ও বাল্য বিয়ে বাড়তে পারে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
  • মায়ের কবরে চিরনিদ্রায় সাহারা খাতুন
  • অক্সফোর্ডের করোনা ভ্যাকসিন অক্টোবরেই
  • দেশে করোনায় আরও ৩০ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৬৮৬
  • ছাতকে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে গিয়ে ফেঁসে গেলেন যুবক
  • হুমায়ুন রশীদ চৌধুরীর মৃত্যুবার্ষিকী পালিত শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ ও দোয়া মাহফিল
  • জাফলংয়ে বাল্কহেডের ধাক্কায় বালুবোঝাই নৌকা ডুবিতে নিখোঁজ ২
  • নগরীর উন্মুক্ত ৩টি মাঠে বসছে কোরবানির পশুর হাট
  • সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর শোক প্রকাশ
  • বৃষ্টিপাতের প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে
  • সাহেদকে কোনোভাবেই ছাড় দেওয়া হবে না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
  • করোনায় বাতিল ট্রেনের টিকিটের মূল্য ফেরত পাবেন যাত্রীরা
  • বাংলাদেশসহ ১৩ দেশ থেকে ইতালি প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা
  • সিলেট বিভাগে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ৫৯, মৃত্যু ২ ও সুস্থ ৬২ জন
  • করোনা জয় করলেন ৩৫ বিচারক
  • বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস আজ
  • ভারতে করোনা শনাক্তে রেকর্ড একদিনে সাড়ে ২৬ হাজারের বেশি
  • দুবাই-আবুধাবি ফ্লাইট চালুর নতুন তারিখ নির্ধারণ
  • সরকারি অফিসে নতুন গাড়ি কেনা বন্ধ
  • কোরবানির চামড়া কিনতে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ঋণ দেওয়ার নির্দেশ
  • Image

    Developed by:Sparkle IT