উপ সম্পাদকীয়

বাংলাদেশ পারে, আমরা ভুলে যাই

মোহাম্মদ আব্দুল হক প্রকাশিত হয়েছে: ০৭-০৭-২০২০ ইং ০৩:২৯:৩৩ | সংবাদটি ১৬৮ বার পঠিত
Image

ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ বলেছিলেন, ‘যে দেশে গুণীর কদর নেই সে দেশে গুণীর জন্ম হয় না।’ মোটামুটি প্রাতিষ্ঠানিক পড়াশুনায় যারা দশ-বারো শ্রেণি পাস করেছেন তারা ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহর নাম শুনেছেন বিশ্বাস রাখি। আর যদি শুনে না-থাকেন, তাহলে দুর্ভাগা আপনি নিজে এবং দুর্ভাগা আপনার শিক্ষক। এখানে ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহকে পরিচয় করিয়ে দিতে লিখছি না। যারা শিক্ষা ও জ্ঞানকে সম্মানের চোখে অনেক উপরে মূল্য দেন, তাঁরা এই লেখার শুরুতে যে উক্তিটি উল্লেখ করেছি, তা থেকেই উক্ত মনীষী সম্পর্কে একটা ধারণা পেয়ে যান এবং তাদের চোখের সামনে ভেসে ওঠে এক শ্রদ্ধাভাজন জ্ঞানী মানুষের ছবি। তিনি আমাদের ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ।
তাঁর কথার গুরুত্বের ধারে কাছে আমরা আজও পৌঁছুতে পারিনি। তাই আজকে যেখানে শহর কিংবা গ্রামে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছড়াছড়ি এবং বছর বছর এতো এতো পাশ দিচ্ছেন আমাদের দেশের সন্তানেরা, সেখানে আমরা প্রতিদিন খবর পাই, দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে লেখাপড়া করে অধিক পাশ করা লোক কিংবা কম পাশ করা লোক প্রায় সকলকেই চুরিতে, ঘুষ খাওয়াতে, দুর্নীতিতে এবং প্রভৃতি অমানবিক ও অনৈতিক কাজের সাথে জড়িত। আমরা চারপাশে গাড়ি ওয়ালা, বাড়িওয়ালা, ক্ষমতা ওয়ালা দুর্নীতিবাজ ব্যবসায়ী ও নেতাদেরকে দেখি এবং এদের সাথেই নমাজ-সমাজ ও মেকি সখ্যতা গড়ে চলি। আর এভাবে চলতে চলতে আমাদের সুন্দর স্বপ্নময় সত্য চেতনা যেনো মরতে বসেছে। এতোসব অসুন্দরের মাঝ থেকে কোনো সুন্দর সম্ভাবনা যদি মাথা তুলে উঁকি দেয়, তাই তখন আমরা মৃতপ্রায় সত্যচেতন নিয়ে বিশ্বাসী চোখে তাকাতে পারি না, আশার আলো দেখে মুখ ফুটে বাহবা জানাতে পারি না। আমরা যেনো ভুলেই গেছি যে, ‘আমরাও পারি’।
মুনীর চৌধুরী তিনি আমাদের গৌরব। তাঁর একটি বিশেষ কীর্তি বাংলা টাইপ রাইটারের কি-বোর্ড (১৯৬৫) উদ্ভাবন, যা ‘মুনীর অপটিমা’ নামে পরিচিত। আমাদের অধিক জনসংখ্যার এই দেশে খাদ্য ঘাটতি নেই বললেই চলে। আমাদের গবেষকরা গবেষণা করে ধানের নতুন নতুন বহু জাত উদ্ভাবন করেছেন। আমরা মনে রাখি না, কেবল বিদেশীদের সফলতায় বাহবা দিই। তাই আমাদের সম্ভাবনা আতুড় ঘরেই মারা যায়।
আজকাল আমাদের জ্ঞানী-গুণীদের কথা বেশিক্ষণ পড়তে বা শুনতে ইচ্ছে করে না। অধিক ক্ষেত্রে লক্ষ করা গেছে কয়েক শ্রেণি পাশ করা ছেলে-মেয়েরা আপন জন্মদাতা পিতা-মাতাকেই সম্মান দিতে চায় না, তাঁদেরকে গুরুত্ব দিতে চায় না। এভাবে চলতে চলতে তারা একসময় পরিবারের প্রতি মনোযোগী না হয়ে, পরজন নেতার কথায় অধিক আকৃষ্ট হয়ে পড়ে। দিনে দিনে পরিবারের মায়া ও সম্মান ভুলে যায়। একসময় তারা নেতা যেমনে চালায় তেমনি চলতে গিয়ে শিকড়হীন হয়ে দিগ্বিদিক ছুটে। এমন যখন অবস্থা, সে ক্ষেত্রে দেশের জ্ঞানীদের নিয়ে দীর্ঘ লেখায় এদের মনোযোগ ধরে রাখা কষ্টসাধ্য। বরং জ্ঞান ও জ্ঞানী, গুণ ও গুণী এসব কথা তাদের কাছে হয়ে ওঠে সন্দেহের ও অবিশ্বাসের। তবে আশার কথা, এরই মাঝে আমাদের কিছু সংখ্যক তরুণ-তরুণী ও মা-বাবা আছেন যারা আলো দেখতে চান, সত্যের বিকাশ দেখেতে চান। নিজেকে ও নিজের দেশকে মর্যাদার আসনে দেখতে চান। এজন্যেই মহামারি করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো ভ্যাকসিন আবিষ্কারের খবর পেয়ে আমরা উল্লসিত হয়েছি। গ্লোব বায়োটেকের এই প্রাথমিক সফলতা দেশজুড়ে প্রশংসা কুড়িয়েছে। কিন্তু চারপাশে অবিশ্বাসের বীজ বোনা। তাই অল্প আলোটুকুও অনেকের সয্য হয় না।
সম্প্রতি আবিস্কৃত ভ্যাকসিন নিয়ে আশাবাদী ড. আসিফ মাহমুদ বলেছেন, বড় কোনো ধরনের প্রতিবন্ধকতার শিকার না হলে ট্রায়াল শেষে আগামী ডিসেম্বরেই এই ভ্যাকসিন বাজারে আনতে পারবেন। ড. আসিফ মাহমুদ আমাদের দেশের সন্তান। তাঁর এই উদ্ভাবনের ভবিষ্যৎ সম্পর্কে আমরা জানি না। তবে বৈজ্ঞানিক সফলতা ধাপে ধাপে আসে। তাই উৎসাহ যোগাতে হয়।
এখনই আমরা ভ্যাকসিনে সফলতা পাবো না; কিন্তু রাত পোহালে সফলতা আসবে এই বিশ্বাস রাখি। আমরা পারি, এই বিশ্বাস দৃঢ় করতে দেশের জ্ঞানী, গুণী ও সফল মানুষের কথা জানি। আমাদের সফলতার ইতিহাস আছে। আসুন খোঁজ নিই এবং সফল মানুষদের ঘিরে থাকি। অল্প একটু সফলতার আলোক, সত্যালোক দেখতে পেলে, আসুন আমরা হিংসা বা নিন্দা না করে, হালকাভাবে না দেখে; বরং অভিনন্দন জানাই। আমরা পারি, বাংলাদেশ পারে। আমরা যেনো ভুলে না যাই।।
লেখক : কলামিস্ট।

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

উপ সম্পাদকীয় এর আরো সংবাদ
  • করোনার ছোবলে জীবন-জীবিকা
  • মানুষ কেন নিমর্ম হয়
  • করোনায় আক্রান্ত শিক্ষা ব্যবস্থা
  • প্রসঙ্গ : ব্যাংকিং খাতে সুদহার এবং খেলাপি ঋণ
  • করোনা, ঈদ এবং ইসলামে মানবতাবোধ
  • ত্যাগের মহিমায় চিরভাস্বর ঈদুল আযহা
  • করোনাকালে শিক্ষার্থীদের প্রত্যাশা
  • আনন্দযজ্ঞে আমন্ত্রণ
  • ত্যাগের মহিমায় কুরবানির ঈদ
  • চাই পথের দিশা
  • ভাটি অঞ্চলের দুর্দশা লাঘব হবে কি?
  • মুক্ত পানির মাছ সুরক্ষায় যা প্রয়োজন
  • উন্নত দেশে মসজিদে গৃহহীনদের আশ্রয়
  • তাইওয়ান সংকট
  • কোরবানী : ঈমানের পরীক্ষা
  • বন্যা প্রতিরোধে আন্তর্জাতিক ভূমিকা
  • শিক্ষা শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের রক্ষা করতে হবে
  • বিসিএস এবং অন্যান্য আলোচনা
  • হজ্ব বাতিলের ইতিহাস
  • মহামারী করোনা ও সেবার মানসিকতা
  • Image

    Developed by:Sparkle IT