শেষের পাতা সীমান্ত দিয়ে পাচারের শঙ্কা

সিলেটে কোরবানির পশুর চামড়া নিয়ে ব্যবসায়ীরা বিপাকে

 এনামুল হক রেনু  প্রকাশিত হয়েছে: ০৫-০৮-২০২০ ইং ০১:১৪:৫০ | সংবাদটি ৯২ বার পঠিত
Image

সিলেটে দাম না পেয়ে কোরবানির পশুর চামড়া নদীতে, রাস্তায়, খালে-নর্দমায় ফেলে দেয়ার ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া কোনো উপায় না পেয়ে অনেকে মাটিতে পুঁতেও রাখেন কোরবানির পশুর চামড়া। গতবছর কোরবানির পশুর চামড়ার দামে যেভাবে ধস নেমেছিল, এবারও সেই একই অবস্থা। বেশি দামে বিক্রির আশায় যেসব ফড়িয়ারা চামড়া সংগ্রহ করেছেন তারা এখন পড়েছেন বিপাকে। কারণ, মৌসুমী ব্যবসায়ীরা ২০ থেকে ৫০ টাকায়ও কিনছেন না এসব চামড়া।
খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, সিলেটে প্রত্যাশিত দামে নিজেরা বিক্রি করতে না পেরে অনেকেই চামড়া সরাসরি দান করেছেন মাদ্রাসা অথবা এতিমখানায়। আবার সেসব চামড়া নিয়ে বিপাকে পড়েছেন সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোও।
এদিকে, সিলেট নগরীর আম্বরখানা এলাকায় এয়ারপোর্ট রোডের পাশে একটি পরিত্যক্ত স্থানে অপরিকল্পিতভাবে ছয় শতাধিক চামড়া ফেলে গত রাখায় রোববার সকাল থেকে দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়ে পুরো এলাকায়। দুর্গন্ধে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েন পুরো এলাকাবাসী। খবর পেয়ে দুপুরে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী সেখানে উপস্থিত হয়ে চামড়াগুলো অপসারণের ব্যবস্থা করেন।
জানা গেছে, পবিত্র ঈদ-উল-আযহার দিন সকালে সিলেটজুড়ে কয়েক সহস্রাধিক পশু কোরবানি দেয়া হয়। দুপুরের পর থেকে সিলেটের বিভিন্ন এলাকা থেকে চামড়া সংগ্রহ করে বিক্রির জন্য নিয়ে আসা হয় নগরীর রেজিস্ট্রারি মাঠ, শিবগঞ্জ বাজারসহ অন্যান্য এলাকায়। কিন্তু এসব স্থানে অবস্থান করে দেখা যায়, গরুর চামড়া ২০ থেকে ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ছাগলের চামড়া কিনতে অনাগ্রহ ব্যবসায়ীদের। বড় আকারের গরুর চামড়া প্রতি পিস ৫০ থেকে ৭০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হতে দেখা গেছে। কিন্তু ছোট আকারের গরুর চামড়া প্রতি পিস ২০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। সরকার যে দর নির্ধারণ করে দিয়েছে, সে দরে চামড়া বিক্রি হতে দেখা যায়নি।
সংশিষ্ট সূত্র জানায়, এ বছর সরকারের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ঢাকার বাইরে লবণযুক্ত গরুর চামড়ার দাম প্রতি বর্গফুট ২৮ থেকে ৩২ টাকা নির্ধারণ করে। সারা দেশে প্রতি বর্গফুট খাসির কাঁচা চামড়া ১৩ থেকে ১৫ টাকা এবং বকরির চামড়া ১০ থেকে ১২ টাকা মূল্য নির্ধারণ করা হয়। সিলেটেও এ বছর চামড়ার লক্ষ্যমাত্রা ছিল ২০ হাজার। কিন্তু ঢাকার ট্যানারি মালিকদের কাছ থেকে কয়েক বছরের পাওনা টাকা না পাওয়ায় ব্যবসায়ীরা ছিল হতাশ। হাতে টাকা না থাকায় এ বছর চামড়া কেনার ক্ষেত্রে ব্যবসায়ীদের ছিল অনাগ্রহ। তাই লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হয়নি এ বছর।
অভিযোগ রয়েছে, মূলধন বকেয়ার অজুহাত দেখিয়ে অধিক মুনাফার আশায় বড় আড়তদারদের সিন্ডিকেট বাজার নিম্নমুখী করেছে। যদিও আড়তদাররা দায়ী করছেন ট্যানারি মালিকদের।
শাহজালাল বহুমূখী চামড়া ব্যবসায়ী সমিতির সহ-সভাপতি শাহীন আহমদ বলেন, ট্যানারি মালিকদের কাছে বকেয়া পাওনা রয়েছে লাখ লাখ টাকা। হাতে টাকা না থাকায় তারা কাক্সিক্ষত পরিমাণে চামড়া কিনতে পারছেন না। ফলে বাজারে চাহিদা কম থাকায় চামড়ার মূল্য স্বাভাবিক কারণে কমে গেছে।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে অনেক ফড়িয়া জানান, সীমান্তে কড়াকড়ি না থাকলে তারা ওপারে চামড়া পাঠিয়ে কিছু লাভের মুখ দেখতেন। এবার সেটিও হচ্ছে না।
তারা জানান, এবার ঈদে চামড়ার দাম নেই বললেই চলে। এক একটি চামড়া ২০-৩০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। অনেকে সড়কে ফেলে চলে গেছে। এ সুযোগে একটি মহল চামড়া সংগ্রহ করে লবণ দিয়ে মজুদ করে রেখেছে। সময় সুযোগ পেলে তা ভারতে পাচার করার চেষ্টা করবে।
বিজিবি সূত্র জানায়, দেশের সব সীমান্তে চামড়া পাচার রোধে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে চিঠি প্রেরণ করা হয়েছে। এর আলোকে সকল সীমান্ত এলাকায় তৎপর রয়েছে বিজিবি।
সূত্র জানায়, খুচরা ও মৌসুমী ব্যবসায়ীরা নির্ধারিত দামের চেয়ে আরো কম দামে চামড়া কিনে মজুদ করে রাখছেন। তারা স্থানীয় বাজারে চামড়া না তুলে নিজস্ব কায়দায় তা সংরক্ষণ করছেন। দেশের বাজারে দাম কম হওয়ায় এই চামড়া বাংলাদেশে রাখা সম্ভব হবে কি-না তা নিয়ে সংশ্লিষ্টদের মধ্যে সংশয় রয়েছে।
বিয়ানীবাজারের লাসাইতলাস্থ বিজিবি-৫২ ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং অফিসার লে. কর্নেল গাজী শহিদুল্লাহ বলেন, সীমান্ত দিয়ে ভারতে চামড়া পাচার রোধে বিজিবিকে সর্বোচ্চ সতর্কাবস্থায় রাখা হয়েছে। বিভিন্ন সীমান্ত পয়েন্টে বিজিবি পোস্টে কড়া নজরদারি রয়েছে। বিশেষ করে রাতে টহল ব্যবস্থা আরো জোরদার করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • নৈতিকতা ও সামাজিক মূল্যবোধে আলোকিত হয়ে বর্তমান প্রজন্মকে গড়ে তুলতে হবে :: দানবীর ড. রাগীব আলী
  • সিলেটের আদালতে নিষ্পত্তি হওয়া ১০১টি মামলার আলামত ধ্বংস
  • মোগলাবাজারে আস্ক ইউর লোকাল পুলিশ শীর্ষক কর্মশালা
  • চুনারুঘাটে সেতু প্রতিরক্ষা বাঁধ ও বাড়িঘর হুমখীর  মুখে
  • নবীগঞ্জে কৃষক মোতচ্ছির হত্যা মামলায় একজনের যাবজ্জীবন
  • অধিক মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রির দায়ে ব্যবসায়ীর জরিমানা
  • দক্ষিণ সুরমায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু
  • সুনামগঞ্জে হাওর থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার
  • দোয়ারায় সাজাপ্রাপ্ত ২ আসামি গ্রেফতার
  • মাধবপুরে পুকুরে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু
  • সিলেট গ্যাস ফিল্ডস থেকে পেট্রোল সরবরাহ না করলে কঠোর কর্মসূচী দিতে বাধ্য হবে ওনার্স এসোসিয়েশন
  • বালাগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মাদরাসা ছাত্রের মৃত্যু
  • শত কোটি টাকা ব্যয়ে গভীর নলকূপ ও স্যানেটারি ল্যাট্রিন পাচ্ছেন দক্ষিণ সুনামগঞ্জ ও জগন্নাথপুরবাসী
  • জার্মানিতে উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ
  • শিক্ষক সমাজের কাছে জাতির প্রত্যাশা অনেক
  • ২০ বছর পর জগন্নাথপুর উপজেলা ছাত্রদলের কমিটি নিয়ে তোড়জোড়
  • টাঙ্গুয়ার হাওরে নৌ পুলিশের স্টেশন স্থাপন হচ্ছে
  • ডা. দেওয়ান নূরুল হোসেন চঞ্চলের মৃত্যুবার্ষিকী আজ
  • সিলেটে ৪ লাখ ৬১ হাজার ৫ শ’ ১৭ শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে
  • প্রেসক্লাবের নয়া কমিটি গঠন
  • Image

    Developed by:Sparkle IT