প্রথম পাতা বিমানবন্দর-বাদাঘাট-তেমুখি সড়ক ++ উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দলের পরিদর্শন

৬ মাসের মধ্যে কাজ শুরুর আশাবাদ

ডাক ডেস্ক : প্রকাশিত হয়েছে: ১০-০৮-২০২০ ইং ০৮:১৪:২৮ | সংবাদটি ১৭২ বার পঠিত
Image

সিলেটের গুরুত্বপূর্ণ বিমানবন্দর-বাদাঘাট-তেমুখি সড়ক সংস্কারের তোড়জোড় শুরু হয়েছে। ১০ বছর আগে নির্মাণ কাজ শুরু হলেও বার বার এর নির্মাণ কাজ বাঁধাগ্রস্ত হয়। সামান্য কিছু দিন চলার পর আজ পর্যন্ত সড়কটির কাজ বন্ধ হয়ে আছে। গত শনিবার সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল সড়কটি পরিদর্শনের পর আবারো সড়কটি নির্মাণের ব্যাপারে আশার সঞ্চার হয়েছে। প্রতিনিধি দল নকশায় সিলেট ওসামানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের সম্প্রসারণের বিষয়টি অন্তর্ভূক্ত করে দ্রুত নকশা সংশোধনের নির্দেশ দিয়ে গেছেন সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের (সওজ) কর্মকর্তাদের।
এদিকে, নির্মাণ কার্যক্রম আবারো শুরুর প্রক্রিয়ায় সিলেটের রাজনীতিবিদ, জনপ্রতিনিধিসহ সাধারণ মানুষ আনন্দ প্রকাশ করেছেন। আগামী ৩ মাসের মধ্যে প্রকল্প অনুমোদন এবং ৬ মাসের মধ্যে কাজ শুরু হবে বলে আশা প্রকাশ করেন সিলেট সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ।
জানা যায়, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ভোলাগঞ্জের পাথরবাহী ট্রাক গুলো যাতে নগরীর ভিতর দিয়ে না গিয়ে বিমানবন্দর-বাদাঘাট-তেমুখি হয়ে বেরিয়ে যেতে পারে সেজন্য সড়কটি নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়। ২০১০ সালের ৪ আগস্ট ৪৫ কোটি ৪২ লক্ষ ৯৬ হাজার টাকা ব্যয়ে এ সড়কের কাজের সূচনা করেন সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তবে ২০১৪ সালে হঠাৎ প্রকল্পটির কাজ বন্ধ হয়ে যায়। এরপর সড়কটি চার লেনে উন্নীত করতে একটি প্রস্তাব তৈরি করে সওজ। ২০১৬ সালে সেই প্রস্তাবনা পাঠানো হয় সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ে। পরের বছর আগের প্রস্তাবনা সংশোধন করে চার লেন সড়কের সঙ্গে দুটি সার্ভিস লেন যুক্ত করে নতুন প্রস্তাবনা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। এরপর বছর খানেক আগে ফের চার লেনের প্রস্তাবনা যায় মন্ত্রণালয়ে। এই ঘুরপাকের মধ্যে শনিবার সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের যুগ্ম প্রধান জাকির হোসেনের নেতৃত্বে সড়কটি পরিদর্শনে আসে উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল। পরিদর্শনকালে আরও উপস্থিত ছিলেন-বাংলাদেশ সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের উপ প্রধান শামিম উজ্জামান, সওজের রোড সেফটি স্ট্যান্ডার্ড বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী তানভীর সিদ্দিকী, পরিকল্পনা বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী নাহিন রেজা, সওজ সিলেটের তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আনোয়ারুল আমিন, অতিরিক্ত প্রকৌশলী তুষার সিনহা, সওজ সিলেটের নির্বাহী প্রকৌশলী রিতেশ বডুয়া।
পরিদর্শনকালে প্রতিনিধি দলের সাথে ছিলেন বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস) এর ব্যুরো প্রধান মকসুদ আহমদ মকসূদ, সিলেট জেলা ট্রাক কাভার্ডভ্যান মালিক সমিতির সভাপতি সৈয়দ মকসুদ আহমদ এবং সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দররের প্রতিনিধি।
সড়কটির প্রয়োজনীয়তা উল্লেখ করে নগরীর মদিনা মার্কেট এলাকার এমদাদুল আমিন চৌধুরী বলেন, শত শত পাথরবাহী ট্রাকের কারণে প্রতিদিন নগরীর আম্বরখানায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। ফলে সাধারণ মানুষকে সীমাহীন দুর্ভোগে পড়তে হয়। একদিকে যানজট অন্যদিকে ; এসব ট্রাকের বেপরোয়া গতি অনিরাপদ করে তুলে পুরো নগরী। পাথরবাহী ট্রাকের দীর্ঘ লাইনের কারণে অনেক সময় বিমানযাত্রীদের চরম বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। বিমানবন্দর-বাদাঘাট-তেমুখি সড়ক নির্মান হলে মানুষ দীর্ঘদিনের এই ভোগান্তি থেকে মুক্তি পাবেন নগরবাসী।
সিলেট সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল পরিদর্শন করায় আশা করা যায় এখন দ্রুত কাজ হবে। প্রতিনিধি দল তাকে জানিয়েছেন ৩ মাসের মধ্যে প্রকল্প অনুমোদন হবে। তিনি আগামী ৬ মাসের মধ্যে কাজ শুরু করতে তাদের আহবান জানান।
তিনি জানান, সড়কটি প্রথমে দুই লেন ছিল। পরে চার লেন হলো। পরে সড়ক বিভাগ একে ৬ লেন করেছিল। প্রয়োজনীয়তা ও বাস্তবতা বিবেচনায় সড়কটি ৪ লেনের নিচে হবে না। এ ব্যাপারে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও সিলেট-১ আসনের এমপি ড. একে আব্দুল মোমেনের সাথে তার কথা হয়েছে বলে জানান তিনি।
প্রতিনিধি দলের প্রধান, বাংলাদেশ সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের যুগ্ম প্রধান জাকির হোসেন বলেন, এ সড়কের বাস্তব অবস্থা সরেজমিনে পর্যবেক্ষণের জন্য তারা এখানে এসেছেন। তাদের পর্যবেক্ষণ সংশ্লিষ্ট দফতরে জানাবেন,পূর্বের ম্যাপ সংশোধনের মাধ্যমে এই সড়কের পূর্ণাঙ্গ প্রকল্প প্রস্তাব তৈরি করা হবে। এতে আগামী ২-৩ মাস সময় লাগতে পারে। তিনি বলেন, তারা যেহেতু এ রাস্তার জন্য সিলেটে এসেছেন, তাহলে অবশ্যই এ রাস্তার কাজ পূর্নাঙ্গ হবে।
রাস্তার নকশা সংশোধন সম্পর্কে সওজ সিলেটের নির্বাহী প্রকৌশলী রিতেশ বডুয়া বলেন, নকশা ঠিকই আছে। শুধুমাত্র বিমানবন্দরের দক্ষিণ দিকে সম্প্রসারণ হতে পারে সেই বিষয়টি নকশায় সংযুক্ত করে দিতে বলা হয়েছে। তারা দ্রুত নকশা সংশোধন করে পাঠিয়ে দিবেন বলে জানান তিনি।

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • এ অনুষ্ঠান শিক্ষার্থীদের জন্য দিক নির্দেশনামূলক : দানবীর ড. রাগীব আলী
  • স্বাস্থ্যের গাড়িচালক আবদুল মালেক বাদল ১৪ দিনের রিমান্ডে
  • ডাকসু’র ভিপি নুর গ্রেফতার
  • সিলেটে ই-পাসপোর্ট সেবা পুরোদমে চালু
  • শায়েস্তাগঞ্জে র‌্যাব পরিচয়ে মাইক্রোবাস যাত্রীর মোবাইল ও টাকা লুট, গ্রেফতার ২
  • সিলেটে স্বস্তির বৃষ্টি
  • সুদে টাকা না নিয়েও দম্পতিকে হয়রানির করুণ কাহিনী
  • নামাজে সব মুসল্লির মাস্ক পরা নিশ্চিতের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর
  • ‘শেখ মুজিব : এ নেশন’স ফাদার’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন
  • শীতে আসছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ
  • আল্লামা শফীকে নিয়ে ফেসবুকে কটুক্তি আলাউদ্দিন জিহাদী গ্রেফতার
  • আইনজীবী তালিকাভুক্তির লিখিত পরীক্ষা স্থগিত
  • সিলেট বিভাগে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা কমেছে, বেড়েছে সুস্থতা
  • শিগগিরই বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিদের দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করা হবে
  • স্বাস্থ্য অধিদফতরের মালেক ড্রাইভার যেভাবে বিপুল সম্পত্তির মালিক
  • প্রচন্ড গরম ও দাম উঠানামার প্রভাব সিলেটের পেঁয়াজের বাজারে
  • রাস্তায় পড়ে গুরুতর অসুস্থ মুয়াজ্জিন হাসপাতালে গিয়েই মারা গেলেন
  • অ্যান্টিজেন টেস্টের অনুমতি দিলো সরকার
  • খালেদা জিয়ার ৪ মামলার স্থগিতাদেশ আপিলেও বহাল
  • প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে পেঁয়াজ আমদানিতে ৫ শতাংশ শুল্ক প্রত্যাহার
  • Image

    Developed by:Sparkle IT