প্রথম পাতা গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হ চায়ের কাপে ঝড়

আয়তন বাড়ছে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের

নূর আহমদ প্রকাশিত হয়েছে: ১১-০৮-২০২০ ইং ০০:৫২:০০ | সংবাদটি ৫৩ বার পঠিত
Image

সিলেট সিটি কর্পোরেশন সম্প্রসারণ ইস্যুটি এখন ‘টক অব দ্যা টাউন’। নগরীর আশপাশের এলাকাগুলো আলোচনা মুখর। কারণ, আয়তনের দিক দিয়ে প্রায় দ্বিগুন হচ্ছে ‘নগর’। এই খবরে ফুরফুরে মেজাজে রয়েছেন জনপ্রতিনিধি হতে ইচ্ছুক এমন সচেতন যুব সমাজ। প্রাথমিক পর্যায়ে সোমবার এ সংক্রান্ত ‘গণবিজ্ঞপ্তি’ প্রকাশ করেছে সিলেট জেলা প্রশাসন। জানা গেছে, শহরতলীতে অবস্থান অথচ নাগরিক প্রায় সকল সুবিধা বিদ্যমান এমন এলাকাকে চিহ্নিত করে নগর সম্প্রসারণের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।
গণবিজ্ঞপ্তিতে যেসব এলাকা (মৌজা) সিলেট সিটি কর্পোরেশেনে অন্তর্ভুক্তির সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে সেগুলো হল, সিলেট সদর উপজেলার টুকের বাজার ইউনিয়নের কুমারগাঁও ৮০, মইয়ারচর ৮১ (দাগ নম্বর ৭৭, ৮২, ৮৩, ৮৯, ৯০, ৯১ ব্যতীত), খুরুমখলা শাহপুর ৮২, আখালিয়া ৮৮, খাদিমনগর ইউনিয়নের কুমারগাঁও ৮০, খাদিমপাড়া ইউনিয়নের সাদিপুর ১ম খন্ড ৯৩, টিলাগড় ৯৫, দেবপুর ৯৬, কসবা কুইটুক ১০০, সুলতানপুর চক ১০১, পেশনেওয়াজ ১০২, টুলটিকর ইউনিয়নের সাদিপুর ১ম খন্ড ৯৩, টিলাগড় ৯৫, দেবপুর ৯৬।
এছাড়া, দক্ষিণ সুরমা উপজেলার কুচাই ইউনিয়নের হবিনন্দি ১০৭, মনিপুর ১০৮, আলমপুর ১০৯, গোটাটিকর ১১০, বরইকান্দি ইউনিয়নের পিরিজপুর ১১৪, ধরাধরপুর ১১৫, বরইকান্দি ১১৬, গোধরাইল ১২৬ এবং তেতলী ইউনিয়নের ধরাধরপুর ১১৫, বরইকান্দি (অবশিষ্টাংশ) ১১৬, বলদী ১২৫ (আংশিক) (দাগ নম্বর ২১৯৯-২৩৪৯, ৩৫০৯-৩৫১১, ৩৫১৩, ৩৫৩৫)। তবে পূর্বে এসব মৌজার যেসব অংশ সিলেট সিটি কর্পোরেশনে অন্তর্ভুক্ত রয়েছে সেগুলো বাদ দিয়ে বাকি অংশ এখন অন্তর্ভূক্ত করা হবে বলে গণবিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।
জানা যায়, ২০০২ সালে ২৬ দশমিক ৫০ বর্গকিলোমিটার আয়তন নিয়ে যাত্রা শুরু করে সিসিক। ২০১৪ সালের জুলাই মাসে আয়তন বাড়ানোর উদ্যোগ নেয় নগর কর্তৃপক্ষ। ২০১৯ সালে এসে স্থানীয় সংসদ সদস্য ড. এ কে আব্দুল মোমেনও আন্তরিক হন নগরীর পরিধি বৃদ্ধিতে। সে লক্ষ্যে সিলেট জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে গত বছরের ১৬ নভেম্বর পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয় ড. মোমেনের উপস্থিতিতে।
এর আগে সিটি কর্পোরেশনের আশপাশ এলাকার মধ্যে উত্তরে খাদিমনগর চা-বাগান, দলদলি চা-বাগান ও সালুটিকর, দক্ষিণে শুড়িগাঁও, মামুদপুর, রুস্তমপুর, কালাইরচক, ডুমশ্রী ও ছাত্তিঘর, পশ্চিমে চাতল, উত্তর ঘোপাল, কসকালিয়া, বাওনপুর, ইনায়েতপুর, হরিপুর, রঘুপুর, দর্শা, মেদিনীমহল, লক্ষ্মীপাশা, হাজরাই, তালিবপুর ও লক্ষ্মীপুর এবং পূর্বে বটেশ্বর, বাঘা, হাতিমনগর, আমদরপুর, উত্তরভাগ, বাগরখলা, হিলালপুর, মাইজভাগ, দাউদপুর ও তিরাশিগাঁও মৌজাকে সিটি করপোরেশনের অন্তর্ভুক্ত করার প্রস্তাব দিয়েছিলো। যদিও জেলা প্রশাসনের সরেজমিন পরিদর্শনে প্রস্তাবিত এলাকাগুলোর মধ্যে বেশিরভাগ এলাকাকে নগরীর অন্তর্ভূক্ত মনে হয়নি। ফলে জেলা প্রশাসনের প্রস্তাবনায় চা বাগান ও কৃষি এবং একেবারেই গ্রামীণ এলাকাগুলোকে সম্প্রসরাণযোগ্য নয় বলে মতামত দেয়া হয়। সর্বশেষ গণবিজ্ঞপ্তিতে সিটি কর্পোরেশনের অন্তর্ভূক্ত করা যায় এমন পূর্ণ মৌজা ও আংশিক মৌজাগুলোর নাম প্রকাশ করা হয়।
অন্যদিকে, সিটি কর্পোরেশনের পরিধি বৃদ্ধির এ খবরে নগরীর আশপাশের এলাকাগুলোতে চলছে লাভ ক্ষতির চুল ছেড়া বিশ্লেষণ। সাধারণ লোকজন বিষয়টির পক্ষে বিপক্ষে নানা মত তুলে চায়ের কাপে ঝড় তুলছেন।
সিলেট সদর উপজেলার টুকেরবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শহীদ আহমদ বলেন, টুকের বাজার ইউনিয়নের কুমারগাঁও ৮০, মইয়ারচর ৮১ (দাগ নম্বর ৭৭, ৮২, ৮৩, ৮৯, ৯০, ৯১ ব্যতীত), খুরুমখলা শাহপুর ৮২, আখালিয়া ৮৮ নং মৌজা গণবিজ্ঞপ্তির ঘোষণা অনুযায়ী অন্তর্ভক্তির প্রস্তাব করা হয়েছে। এই খবরে ইউনিয়নের সাধারণ বাসিন্দারা ভিন্ন ভিন্ন প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করছেন। চেয়ারম্যান জানান, খুররমখলা মৌজা ও মইয়ারচর মৌজায় কৃষি জমি রয়েছে। এরজন্য কৃষকরা বেশ উদ্বিগ্ন রয়েছেন। অনেকেই সিটি কর্পোরেশনে ঢুকে তাদের লাভ কী এমন মন্তব্য করছেন। আবার খুররমখলা মৌজায় ইউনিয়ন পরিষদ কমেপ্লেক্সে এর অবস্থান। এ নিয়ে নতুন করে জটিলতার সৃষ্টি হবে। সেবা কার্যক্রম পরিচালনায় বিঘœ সৃষ্টির বিষয়টিও ইউনিয়নের সচেতন বাসিন্দারা তাদের নজরে রেখেছেন। আলহাজ্ব শহীদ আহমদ বলেন, কারো আপত্তি বা পরমার্শ থাকলে তারা নির্ধারিত তারিখে অভিযোগ বা পরামর্শ প্রদান করবেন।
স্থানীয় সরকার বিভাগ, সিলেটের উপ পরিচালক মীর মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘আমরা একটি গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেছি। গণবিজ্ঞপ্তিতে ৮ সেপ্টেম্বর তারিখের মধ্যে আপত্তি জানানোর কথা বলা হয়েছে। যদি কেউ আপত্তি করেন তাহলে এটি সমাধান করা হবে। পরে মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করা হবে। তবে নতুন করে কতটি ওয়ার্ড সংযুক্ত হচ্ছে এটি এখনই বলা যাচ্ছে না বলেও জানান তিনি।

 

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • এ অনুষ্ঠান শিক্ষার্থীদের জন্য দিক নির্দেশনামূলক : দানবীর ড. রাগীব আলী
  • স্বাস্থ্যের গাড়িচালক আবদুল মালেক বাদল ১৪ দিনের রিমান্ডে
  • ডাকসু’র ভিপি নুর গ্রেফতার
  • সিলেটে ই-পাসপোর্ট সেবা পুরোদমে চালু
  • শায়েস্তাগঞ্জে র‌্যাব পরিচয়ে মাইক্রোবাস যাত্রীর মোবাইল ও টাকা লুট, গ্রেফতার ২
  • সিলেটে স্বস্তির বৃষ্টি
  • সুদে টাকা না নিয়েও দম্পতিকে হয়রানির করুণ কাহিনী
  • নামাজে সব মুসল্লির মাস্ক পরা নিশ্চিতের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর
  • ‘শেখ মুজিব : এ নেশন’স ফাদার’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন
  • শীতে আসছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ
  • আল্লামা শফীকে নিয়ে ফেসবুকে কটুক্তি আলাউদ্দিন জিহাদী গ্রেফতার
  • আইনজীবী তালিকাভুক্তির লিখিত পরীক্ষা স্থগিত
  • সিলেট বিভাগে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা কমেছে, বেড়েছে সুস্থতা
  • শিগগিরই বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিদের দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করা হবে
  • স্বাস্থ্য অধিদফতরের মালেক ড্রাইভার যেভাবে বিপুল সম্পত্তির মালিক
  • প্রচন্ড গরম ও দাম উঠানামার প্রভাব সিলেটের পেঁয়াজের বাজারে
  • রাস্তায় পড়ে গুরুতর অসুস্থ মুয়াজ্জিন হাসপাতালে গিয়েই মারা গেলেন
  • অ্যান্টিজেন টেস্টের অনুমতি দিলো সরকার
  • খালেদা জিয়ার ৪ মামলার স্থগিতাদেশ আপিলেও বহাল
  • প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে পেঁয়াজ আমদানিতে ৫ শতাংশ শুল্ক প্রত্যাহার
  • Image

    Developed by:Sparkle IT