উপ সম্পাদকীয়

বঙ্গবন্ধুর সাংবাদিকতা

রফিকুর রহমান লজু প্রকাশিত হয়েছে: ১৩-০৮-২০২০ ইং ০৭:৪৮:৫১ | সংবাদটি ১০৭ বার পঠিত
Image

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের জীবন পূর্ণাঙ্গ জীবন। তিনি জীবনে আনন্দ বেদনা, দুঃখ-কষ্ট সব কিছুরই স্বাদ পেয়েছেন। মানুষের জীবন যাপনে স্বাভাবিকভাবেই সুখ থাকে, আনন্দ থাকে, বেদনা, কষ্ট থাকে। সব রকম অনুভূতিই তিনি উপভোগ করেছেন। তিনি ছাত্র রাজনীতি করেছেন, জাতীয় রাজনীতি করেছেন। জেল খেটেছেন, ক্ষমতা পেয়েছেন। প্রেসিডেন্ট হয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন। বিরোধীদল করেছেন, ক্ষমতাসীন দলের নেতৃত্ব দিয়েছেন। অন্তরীণ ছিলেন। ফাঁসির সেলে থেকেছেন। কাছে থেকে ফাঁসির রশি দেখেছেন, ফাঁসির মঞ্চ দেখেছেন। তাঁর নিজের জন্য শত্রুর খনন করা কবরও দেখেছেন। ফাসির রশি গলায় পরে কবর দেখে দেখে আশ্চর্য অলৌকিকভাবে তিনি বেঁচে গেছেন। রাজনীতিবিদ হিসেবে সব রকম অভিজ্ঞতা নিয়েছেন। তাঁর আর কিছু হওয়ার নেই, কিছু পাওয়ার নেই।
তিনি সব পেয়ে, সব দিয়ে, অমূল্য জীবন দিয়ে স্বাধীনতা এনেছেন, বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেছেন। বঙ্গবন্ধুকে কলঙ্কিত করার, বিতর্কিত করার, ইতিহাস থেকে মুছে ফেলার চেষ্টা হয়েছে। সব ব্যর্থ হয়েছে। তিনি সর্বত্র সর্বক্ষেত্রে জয়ী, সফল। তিনি জাতির পিতা হয়েছেন, রাষ্ট্রের স্থপতির আসনে অধিষ্ঠিত হয়েছেন।
এতসব সত্ত্বেও দেখা যায়, বঙ্গবন্ধুর জীবনের একটি দিক সবাইর জানা নয়। অনুদ্ঘাটিত রয়েছে একটি দিক। হয়তো অনেকেরই জানা, তার ঘনিষ্ঠজনদের বা সংশ্লিষ্টদের জানা। কিন্তু সেদিকটি আলোচিত হয়নি। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সাংবাদিকতাও করেছেন, তিনি সাংবাদিক ছিলেন।
লেখক-সাংবাদিক-বুদ্ধিজীবি বিলেতে স্বেচ্ছায় প্রবাস জীবন বেছে নেয়া প্রবাসী আবদুল গাফফার চৌধুরী তাঁর এক লেখায় সাংবাদিক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে তুলে ধরেছেন। বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনের একটি লেখায় তিনি দৈনিক যুগভেরীতে ১৭ মার্চ ২০২০ সাংবাদিক বঙ্গবন্ধুকে পরিচয় করিয়ে দিয়েছেন।
বঙ্গবন্ধু যখন ইসলামিয়া কলেজের ছাত্র এবং কলকাতার বেকার হোস্টেলে থাকতেন, তখন থেকেই তিনি আবুল হাশেম ও শহীদ সোহরাওয়ার্দীর সমর্থক হিসেবে কলকাতার মিল্লাত পত্রিকার সঙ্গে যুক্ত হন। একটি ছাত্র গ্রুপ সঙ্গে নিয়ে তিনি হাওড়া ও শেয়ালদা স্টেশনে মিল্লাত বিক্রি করতেন। সে সময় নাজিম উদ্দীনের কর্তৃত্বাধীন আজাদ পত্রিকা আবুল হাশেম ও সোহরাওয়ার্দীর বিরুদ্ধে কৌশলে প্রচার চালাতো। তখন বঙ্গবন্ধু এই প্রচারণার জবাব লিখতেন। শেখ মুজিব অনিয়মিতভাবে মিল্লাতে লিখতেন। তিনি মখিক ছদ্মনাম ব্যবহার করতেন।
বঙ্গবন্ধু তাঁর আত্মজীবনীতে অনেক বিষয়ে লিখেছেন কিন্তু সাংবাদিকতার কথা উল্লেখ করেননি। রাজনীতিবিদ বঙ্গবন্ধু তার সাংবাদিকতা করাকে তেমন গুরুত্ব দেননি। শহীদ সোহরাওয়ার্দী যখন অবিভক্ত বাংলার প্রধানমন্ত্রী তখন হাশেম-সোহরাওয়ার্দী গ্রুপের উদ্যোগে কলকাতা থেকে দৈনিক ইত্তেহাদ বের হয়। আবুল মনসুর আহমদ হন সম্পাদক। তিনি তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া ও বঙ্গবন্ধুকে সাংবাদিকতায় টানতে চেয়েছিলেন। কিন্তু বঙ্গবন্ধুর স্পষ্ট জবাব ছিলো। তিনি বলেন, আমার পেশা রাজনীতি, সাংবাদিকতা আমার নেশা। আমি রাজনীতিক হবো।
মাওলানা ভাসানী ও বঙ্গবন্ধুর উদ্যোগে সাপ্তাহিক ইত্তেফাক প্রকাশিত হয়। অফিস ছিলো কারকুন বাড়ি লেনে। সম্পাদক ছিলেন ফজলুর রহমান খান। পরে মানিক মিয়া ঢাকায় আসার পর বঙ্গবন্ধু তাঁকে ডেকে এনে সাপ্তাহিক ইত্তেফাকের সম্পাদক পদ গ্রহণে সম্মত করান। পরে ’৫৪ সালের নির্বাচনের পূর্বে তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া ঢাকা থেকে দৈনিক ইত্তেফাক প্রকাশ করেন। বঙ্গবন্ধু তাকে সাহায্য করেন।
বঙ্গবন্ধু নিজ উদ্যোগে পত্রিকা বের করেন ১৯৫৬/৫৭ সালে। তাঁর পত্রিকার নাম ছিলো সাপ্তাহিক ‘নতুন দিন’। তিনি নিজে ছিলেন প্রধান সম্পাদক এবং কবি জুলফিকার ছিলেন সম্পাদক। অল্প কিছুদিনের মধ্যে পত্রিকাটি জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। ১৯৫৮ সালে সামরিক শাসন জারি হলে বঙ্গবন্ধু গ্রেফতার হন। সরকার ‘নতুন দিন’ প্রকাশ বন্ধ করে দেয়। সোভিয়েত বিপ্লবের নেতা হয়েও লেনিন সাংবাদিকতা করতেন। তিনি নির্বাসিত জীবনে লন্ডন থেকে রুশ ভাষায় ‘ইসক্রা’ নামে একটি সাপ্তাহিক পত্রিকা বের করতেন। ‘ইসক্রা’ ছিলো বলশেভিক পার্টির মুখপত্র। বঙ্গবন্ধুও রাজনৈতিক জীবনের পাশাপাশি সংবাদপত্র প্রকাশ করেছেন যা ছিলো বাংলাদেশের মুক্তি আন্দোলনের দীপশিখা।
লেখক : কলামিস্ট।

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

উপ সম্পাদকীয় এর আরো সংবাদ
  • আত্মীয়তা-আত্তীকরণ দুটোকেই না বলুন
  • ভেজাল থেকে বাঁচান
  • অসহায় শ্রমিকদের দিকে তাকান
  • ডিপ্লোমা শিক্ষা ও জাতির উন্নয়ন
  • সুনামগঞ্জের তিন কৃতি ব্যক্তিত্বের মৃত্যুতে
  • বৈচিত্র্যের সৌন্দর্য
  • আল্লামা আহমদ শফী চলে গেলেন
  • কর্তৃত্ববাদী রাজনীতির নব্য রূপকার
  • স্মরণ:ডা. দেওয়ান নূরুল হোসেন চঞ্চল
  • কোভিড-১৯ এর সম্মুখ সমরে লড়ছে জিন প্রকৌশলীরা
  • মধ্যপ্রাচ্যের রাজনীতিতে তুরস্কের প্রভাব
  • বৃদ্বাশ্রম
  • পুষ্টি-অপুষ্টি প্রসঙ্গ
  • পুষ্টি-অপুষ্টি প্রসঙ্গ
  • সত্য যখন উক্তি হয়ে ফিরে আসে
  • প্রসঙ্গ : মহামারিতে ধৈর্য ধারণ
  • মা-বাবার সাথে থাকি
  • নব্যউদারনীতিবাদ নিয়ে কিছু কথা
  • মাওলানা আবুল কালাম আজাদ
  • বাউল সম্রাট ও গ্রামীণ সংস্কৃতি
  • Image

    Developed by:Sparkle IT