প্রথম পাতা

ভোলাগঞ্জের ঐতিহাসিক স্থাপনা ‘দশ নম্বর’ বিলীন হয়ে যাচ্ছে

আবিদুর রহমান, কোম্পানীগঞ্জ (সিলেট) থেকে : প্রকাশিত হয়েছে: ২৫-০৯-২০২০ ইং ০০:৫৬:৫৮ | সংবাদটি ৫১১ বার পঠিত
Image

ওপাশে মেঘালয়। এ পাশে ধলাই বিধৌত বাংলাদেশ। মাঝখানে নো ম্যানস ল্যান্ড। নদী তো কতই আছে নদীমাতৃক এ দেশে। কিন্তু সম্পদে-সৌন্দর্যে, কর্মচাঞ্চল্যে ধলাইর মতো বর্ণাঢ্য নদী খুব বেশি নেই। পাহাড়ি এ নদীটির অবস্থান সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায়। এ নদীর রূপের ধারে, ঐশ্বর্যের ভারে আরও বেশি মনোলাভা হয়েছে এই আমার বাংলাদেশ।
জীবিকার প্রয়োজনে ধলাইর সবচেয়ে ব্যস্ত জায়গা ভোলাগঞ্জ দশ নম্বর ঘাট। একসময় পাথর নিতে ধলাইর পাড়ে প্রতিদিনই অসংখ্য ট্রাক ও ট্রাক্টর আসত দূর-দূরান্ত থেকে। পাথরের যোগান নির্বিঘ্ন রাখার জন্য প্রতিদিন শত শত পাথর খালাসের কাজ করত এখানকার শ্রমিকরা। সময়ের পরিক্রমায় শ্রমিকদের কাজের সুযোগ কমে গেলেও দশ নম্বর এলাকার গুরুত্ব বরং বেড়েছে। ধলাই পাড়ে পাথর ভাঙ্গার পাওয়ার ক্রাশিং প্ল্যান্ট আগে ছিল হাতে গোনা কয়েকটি। এখন কয়েক’শ। কিন্তু অবহেলায় ঐতিহাসিক ও দর্শনীয় এ স্থানের জৌলুশ এখন মলিন।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, এ বছরের কয়েক দফার বন্যার পানির চাপে এবং পাহাড় থেকে গড়িয়ে পড়া পানির শ্রোতে ভেঙ্গে গেছে ভোলাগঞ্জের বিস্তীর্ণ এলাকা। বর্তমানে দশ নম্বর ও ভোলাগঞ্জ গুচ্ছগ্রাম হুমকির মুখে পড়েছে। এরই মধ্যে দশ নম্বর এলাকার বিরাট অংশ নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। হুমকীর মুখে পড়েছে সিলেট-কোম্পানীগঞ্জ-ভোলাগঞ্জ বঙ্গবন্ধু মহাসড়ক। ভাঙন কবলিত এলাকা থেকে মাত্র এক’শ গজ দূরে মহাসড়কের অবস্থান। এলাকাবাসীর মধ্যে বিরাজ করছে ‘ভাঙন’ আতঙ্ক। যেকোনো সময় দশ নম্বর এলাকাটি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাবার আশঙ্কা তাড়িয়ে বেড়াচ্ছে স্থানীয় বাসিন্দাদের।
স্থানীয় লোকজন আরো জানান, ভোলাগঞ্জ গ্রাম ও ভোলাগঞ্জ আদর্শগ্রাম ছাড়াও ওই এলাকায় ভোলাগঞ্জ স্থল শুল্ক স্টেশন, বর্ডার হাট, মসজিদ এবং কাস্টমস অফিসের অবস্থান। এভাবে ভাঙন চলতে থাকলে দু’টি গ্রামের পাশাপাশি এসব স্থাপনাও নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যেতে পারে।
এমতাবস্থায় কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ঐতিহাসিক এই জায়গাটি রক্ষায় স্থানীয় প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছেন স্থানীয় সচেতন মহল।
স্থানীয়রা জানান, নিকট অতীতে ভোলাগঞ্জ পাথর কোয়ারিতে ঐতিহ্যবাহী ১০ নম্বর এবং ভোলাগঞ্জ গ্রাম ধ্বংসের টার্গেট করেছিল বোমা সিন্ডিকেট। অবশ্য ভোলাগঞ্জকে বোমা মেশিনমুক্ত রাখতে স্থানীয় ও জেলা প্রশাসন নিজেদের শক্তি সামর্থ্য দিয়ে সাধ্যমত প্রচেষ্টা চালিয়েছেন।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় কয়েকজন জানান, একটি প্রভাবশালী মহলের ছত্রচ্ছায়ায় এখনও রাতের আঁধারে দশ নম্বর এলাকা ঘেঁষে বালু ও পাথর উত্তোলন চলে। এভাবে চলতে থাকলে ঐতিহাসিক এই এলাকাটি মানচিত্র থেকে হারিয়ে যাবে বলে সচেতন মহল মনে করছেন।
স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, পাথর কোয়ারি এলাকায় এক সময় সনাতন পদ্ধতিতে পাথর উত্তোলন চলত। পানিতে নেমে হাত দিয়ে পাথর উত্তোলনের কর্মযজ্ঞে তখন হাজার হাজার পাথর শ্রমিক আর বারকি নৌকার আনাগোনা ছিল। ভোলাগঞ্জের প্রাকৃতিক পরিবেশের কোনো ক্ষতি হয়নি তখন। কিন্তু অতি মুনাফালোভী ব্যবসায়ীদের কারণে এবং পরিবেশ বিধ্বংসী বোমা মেশিনের ব্যবহারের ফলে ভোলাগঞ্জসহ বিস্তীর্ণ এলাকা বিরাণ ভূমিতে পরিণত হয়েছে।
ইসলামপুর পশ্চিম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহ মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন বলেন, ঐতিহাসিক দশ নম্বর এলাকাটি নদীগর্ভে হারিয়ে যাচ্ছে। এর মূল কারণ- বিগত চার/পাঁচ বছর যাবত অবৈধভাবে পাথর উত্তোলন করে একটি পাথর খেকো চক্র এলাকাটি ধ্বংস করেছে। তদন্ত করে প্রথমে ওই চক্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া দরকার। পাশাপাশি যেহেতু এখানে বঙ্গবন্ধু মহাসড়ক, ইমিগ্রেশন, বর্ডার হাট ও স্থল বন্দরসহ গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন স্থাপনা রয়েছে। জনস্বার্থে এসব স্থাপনা রক্ষায় জরুরিভিত্তিতে এখানে বাঁধ দেওয়া প্রয়োজন।
সিলেটস্থ কোম্পানীগঞ্জ সমিতির সাধারণ সম্পাদক এমএ রফিকুল হক বলেন, এখানে আমদানীকারক পাথর ব্যবসায়ীদের সুবিধার্থে সরকারি কাস্টমস অফিস চালু আছে। যেখানে পাথর আমদানীর জন্য বিশাল জায়গা দরকার। সরকার প্রতি বৎসর শত কোটি টাকার রাজস্ব এখান থেকে আহরণ করছে। হাজার ব্যবসায়ী নিয়মিত বৈধভাবে ভারত থেকে পাথর, কয়লা ও চুনাপাথর আমদানী করে আসছেন। ভোলাগঞ্জ দশ নম্বরকে ইতোমধ্যে বাংলাদেশের ২৪তম ‘স্থল বন্দর’ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। কাজ দ্রুত বাস্তবায়নের চেষ্টা চলছে। স্থানীয় প্রশাসনকে এই গুরুত্বপূর্ণ এলাকাটি রক্ষায় এগিয়ে আসতে হবে।
ভোলাগঞ্জ আমদানীকারক সমিতির সভাপতি হাজী মো. সাহাব উদ্দিন বলেন, ভোলাগঞ্জ দশ নম্বর এলাকাটি রক্ষার্থে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট সমিতির পক্ষ থেকে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। কিন্তু কোন প্রতিকার হয়নি। বর্তমানে ভোলাগঞ্জ গুচ্ছগ্রামের উত্তরে নদীর তীর ঘেঁষে বালু নেয়ায়র এবং বৃষ্টির পানি গড়িয়ে পড়ার কারণে ভাঙ্গন বেড়েছে। প্রতিদিন নতুন নতুন এলাকায় ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। ভোলাগঞ্জ স্থল শুল্ক স্টেশন, নির্মাণাধীন পুলিশ ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট, ভোলাগঞ্জ গুচ্ছগ্রাম, মসজিদ, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ অনেক সরকারি-বেসরকারি স্থাপনা হুমকীর মুখে পড়েছে। জরুরী ভিত্তিতে গুরুত্বপূর্ণ এসব স্থাপনা রক্ষায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানাচ্ছি।
উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী মো. শামীম আহমদ বলেন, ঐতিহাসিক প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি ভোলাগঞ্জ দশ নম্বর। দীর্ঘদিনের অবহেলা আর সুষ্ঠু পরিকল্পনার অভাবে কোম্পানীগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী এই স্থাপনাটি হারিয়ে যেতে বসেছে। এখানে পর্যটন ও বিনোদনের অনেক সম্ভাবনা আছে। দখলবাজদের কাছ থেকে জায়গাটি পুনরুদ্ধার করা গেলে পর্যটকদের সুবিধার্থে এখানে বিভিন্ন স্থাপনা নির্মাণ করা যাবে। তিনি ঐতিহাসিক স্থাপনাটি রক্ষায় স্থানীয় সাংসদ, জেলা প্রশাসক ও স্থানীয় প্রশাসনকে উদ্যোগ নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুমন আচার্য বলেন, প্রাথমিক পর্যায়ে দশ নম্বর এলাকার সব অবৈধ স্থাপনা ও দখল উচ্ছেদ করা হবে। পরে এলাকাটি রক্ষায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • পলাতক আকবরকে গ্রেফতারের সর্বাত্মক চেষ্টা চলছে
  • করোনাভাইরাস: স্ত্রীর মৃত্যুর একদিন পর চলে গেলেন ‘নিকুঞ্জ স্যার’
  • দক্ষিণ সুরমা উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক সিরাজুল ইসলামের ইন্তেকাল: আজ জানাজা
  • দুদকের সাবেক কমিশনার কুলাউড়ার মনিরুদ্দিনের ইন্তেকাল : বনানী কবরস্থানে দাফন
  • কাউন্সিলর পদ হারালেন ইরফান সেলিম
  • এমপি আবু জাহির করোনায় আক্রান্ত
  • সার্ভিস বুকে অন্তর্ভুক্ত হবে প্রাথমিক শিক্ষকদের উচ্চতর ডিগ্রি
  • সপ্তাহের শেষে সিলেটসহ সারাদেশে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা
  • রাষ্ট্রপতি দেশে ফিরেছেন
  • মহানবী (সাঃ) এর অবমাননা মুসলমানরা বরদাস্ত করবে না
  • ‘করোনাভাইরাসের সময় এশিয়ায় সর্বোচ্চ প্রবৃদ্ধি বাংলাদেশের’
  • বিদেশগামীদের জন্য সিলেটে আলাদা আরেকটি কোভিড ল্যাব স্থাপনের চিন্তা-ভাবনা চলছে
  • প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হলো শারদীয় দুর্গোৎসব
  • মৌলভীবাজারে মোটর সাইকেল চোরকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ
  • বিএসএমএমইউ’র সাবেক ভিসি অধ্যাপক ডা. তাহিরের ইন্তেকাল
  • জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি সৈয়দ আব্দুল মুক্তাদিরের ইন্তেকাল
  • ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত ইন্টারনেটের গতি কম পেতে পারেন গ্রাহকেরা
  • রহস্যের জট খুলতে পারে চলতি সপ্তাহে!
  • ইরফান সেলিমের টর্চার সেলের সন্ধান পেয়েছে র‌্যাব
  • ‘ফ্রান্স ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করে রাসূলের (সা.) অবমাননায় চরম ধৃষ্টতা দেখিয়েছে’
  • Image

    Developed by:Sparkle IT