সম্পাদকীয় লজ্জাজনক কাজের জন্য অনুতাপ করা জীবনের পরিত্রাণ স্বরূপ। -ডেমোক্রিটাস

অসংক্রামক রোগের প্রকোপ

প্রকাশিত হয়েছে: ১১-১০-২০২০ ইং ০৪:০৮:৫০ | সংবাদটি ৯৩ বার পঠিত
Image

অসংক্রামক রোগের প্রকোপ বাড়ছে। জানা গেছে, দেশে অসুস্থদের ৬১ শতাংশই আক্রান্ত নানা ধরনের অসংক্রামক রোগে। এক পরিসংখ্যানের তথ্য হচ্ছে, ১৫ বছর বা তার বেশি বয়সীদের ৯৭ শতাংশের কমপক্ষে একটি অসংক্রামক রোগের ঝুঁকি রয়েছে। আর এই জনগোষ্ঠীর অর্ধেকের আছে দু’টি রোগের ঝুঁকি। বিশেষজ্ঞদের মতে, অনেক অসংক্রামক রোগের পূর্ণাঙ্গ চিকিৎসা ব্যবস্থা দেশে নেই। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই সব রোগের চিকিৎসা খুবই ব্যয় বহুল। তাই অনেক অসংক্রামক রোগীকে চিকিৎসার অভাবে অকালে মৃত্যুবরণ করতে হচ্ছে। এসব রোগ মোকাবেলায় কোন জাতীয় দিকনির্দেশনা নেই। বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিকগুলো নিজেদের মতো করে ব্যবসায়িক মনোভাব নিয়ে এই জাতিয় রোগের চিকিৎসা চালিয়ে যাচ্ছে।
বিশেষজ্ঞদের মতে, ইদানিং নানা ধরনের অসংক্রামক রোগে মৃত্যুর সংখ্যা অতীতের তুলনায় অনেক বেশি। ক্যান্সার, হৃদরোগ, ফুসফুসের রোগ, কিডনি রোগ ইত্যাদির প্রকোপ বাড়ছে। বাংলাদেশে প্রতি হাজারে এক দশমিক আটজন ক্যান্সারে আক্রান্ত। প্রতি বছর প্রায় ২৫ হাজার রোগীর কিডনি পুরোপুরি অকেজো হয়ে যাচ্ছে। লিভারের জটিল রোগেও আক্রান্ত হচ্ছেন অনেক রোগী। অথচ দেশে পূর্ণাঙ্গ লিভার প্রতিচ্ছাপন ব্যবস্থা গড়ে ওঠেনি। অতীতে মানুষ বেশি মারা যেতো কলেরা, টাইফয়েড ইত্যাদিতে। কিন্তু দিন দিন মানুষের জীবনযাত্রার ধরন ও লাইফ স্টাইল পরিবর্তনের সূত্র ধরে রোগের ধরনে গুণগত পরিবর্তন এসেছে। ফলে এখন ৬০ শতাংশের বেশি মৃত্যু হচ্ছে সংক্রামক নয়, বরং অসংক্রামক রোগে। তাই অসংক্রামক রোগ থেকে বাঁচতে সর্বোচ্চ সচেতনতার বিকল্প নেই। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক বুলেটিনে বলা হয়েছে- খাদ্যাভ্যাস ও জীবনাচারের পরিবর্তন, দ্রুত নগরায়ন, ধূমপান, প্রক্রিয়াজাত খাদ্যের প্রসার, বায়ু দূষণ, মানসিক চাপের কারণে অসংক্রামক রোগের প্রকোপ বেড়ে চলেছে।
এক্ষেত্রে আশার কথা হচ্ছে, দেশে অসংক্রামক রোগ প্রতিরোধে গবেষণা কার্যক্রম শুরু হয়েছে বছর কয়েক আগে। সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান-আই-ইডিসিআর এই গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা করছে। এর মাধ্যমে দেশের মানুষের আচরণগত রোগব্যাধির ঝুঁকি ও সমস্যা নিরূপণে নতুন নতুন উপায় বের করা হবে। এর উদ্দেশ্য হচ্ছে এসব রোগ মোকাবেলায় জাতীয় দিকনির্দেশনা প্রস্তুত করা। এই গবেষণার পাশাপাশি অসংক্রামক রোগের চিকিৎসার ওপর জোর দিতে; হবে। প্রথমত অনেক রোগের সঠিক চিকিৎসা ব্যবস্থাও নেই দেশে। আর যা-ও রয়েছে, সেটা খুবই ব্যয়বহুল। সরকারিভাবে অসংক্রামক রোগের উন্নত চিকিৎসা ব্যবস্থা গড়ে তোলা সময়ের দাবী।

শেয়ার করুন

Developed by:Sparkle IT