প্রথম পাতা

শারদীয় দুর্গোৎসবের আজ মহাঅষ্টমী

সুনীল সিংহ প্রকাশিত হয়েছে: ২৪-১০-২০২০ ইং ০৩:৩২:০০ | সংবাদটি ৯৫ বার পঠিত

আজ শনিবার শারদীয় দুর্গোৎসবের মহাঅষ্টমী। আজ কুমারী পূজাও। কুমারী পূজায় একজন বালিকার মধ্যে শুদ্ধ নারীর রূপ চিন্তা করে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা দেবী জ্ঞানে তাকে পূজা করেন। আজ সকালে অষ্টমী বিহিত পূজা অনুষ্ঠিত হবে। হবে সন্ধিপূজাও। এদিন বলিদানও হয়। সন্ধিপূজায় দেবী দুর্গাকে চন্ডীরূপে বা কালীরূপে পূজা করা হয়।
জীবের দুর্গতি হরণ করেন বলে তিনি দুর্গা। আবার তিনি দুর্গম নামের অসুরকে বধ করেছিলেন বলেও দুর্গা নামে পরিচিতা হন। তিনি শক্তিদায়িনী অভয়দায়িনী। যুগে যুগে বিভিন্ন সংকটের সময় তিনি মর্ত্য ধামে আবির্ভূত হয়েছেন বিভিন্ন রূপে, বিভিন্ন নামে। তাই, তিনি আদ্যাশক্তি, ব্রহ্মা সনাতনী। দুর্গা, মহিষ মর্দিনী, কালিকা, ভারতী, অম্বিকা, গিরিজা বৈষ্ণবী, কৌমারী, বাহারী, চন্ডী লক্ষ্মী, উমা, হৈমবতী, কমলা, শিবানী, যোগনিদ্রা নামেও পূজিতা।
মার্কন্ডেয় পুরাণ মতে, মহিষাসুর নামক অসুর স্বর্গ থেকে দেবতাদের বিতারিত করে স্বর্গ অধিকার করে। এতে দেবতারা ব্রহ্মার শরণাপন্ন হন। ব্রহ্মা এর প্রতিকারের জন্য মহাদেব ও অন্য দেবতাদের নিয়ে বিষ্ণুর কাছে উপস্থিত হন। মহিষাসুর তাকে কোন পুরুষ বধ করতে পারবেন না বলে বর লাভ করেছিলেন। তাই, বিষ্ণু দেবতাদের পরামর্শ দেন যে, প্রত্যেক দেবতা নিজ নিজ তেজ ত্যাগ করে একটি নারী মূর্তি সৃষ্টি করবেন। এরপর সমবেত দেবতারা তেজ ত্যাগ করতে আরম্ভ করেন। তাদের মধ্যে মহাদেবের তেজে মুখ, যমের তেজে চুল, বিষ্ণুর তেজে বাহু, চন্দ্রের তেজে বক্ষ, ইন্দ্রের তেজে কটিদেশ, বরুণের তেজে জঙ্ঘা ও উরু, পৃথিবীর তেজে নিতম্ব, ব্রহ্মার তেজে পদযুগল, সূর্যের তেজে পায়ের আঙুল, বসুগণের তেজে হাতের আঙুল, কুবেরের তেজে নাসিকা, প্রজাপতির তেজে দাঁত, অগ্নির তেজে ত্রিণয়ন, সন্ধ্যার তেজে ব্রু, বায়ুর তেজে কান এবং অন্যান্য দেবতার তেজে শিবারূপী দুর্গার সৃষ্টি।
এরপর দেবতারা তাকে বস্ত্র, পোশাক ও অস্ত্র দান করেন। মহাদেব দিলেন শূল, বিষ্ণু দিলেন চক্র, বরুণ দিলেন শঙ্খ, অগ্নি দিলেন শক্তি, বায়ু দিলেন ধনু ও বাণপূর্ণ তুণ, ইন্দ্র দিলেন বজ্র, ঐরাবত দিলেন ঘন্টা, যম দিলেন কালদন্ড, ব্রহ্মা দিলেন অক্ষমালা ও কমন্ডলু, সূর্য দিলেন রশ্মি, কালখক্ষ ও নির্মল চর্ম, ক্ষিরোদসাগর দিলেন অক্ষয় বস্ত্রসহ বিভিন্ন অলংকার ও আভরণ, বিশ্বকর্মা দিলেন পরশু সহ নানাবিধ অস্ত্র, অভেদ্য কবচমালা, হিমালয় দিলেন সিংহ, কুবের দিলেন অমৃতের পান পাত্র, শীষনাগ দিলেন নাগাহার, অন্য দেবতারা দিলেন সাধ্যমত উপহার।
দুর্গতি নাশিনী দেবী দুর্গার আগমনে ভক্ত পুণ্যার্থীরা আজ শনিবার পূজামন্ডপে সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে সমবেত হবেন আনন্দ ও শ্রদ্ধাকূল চিত্তে। পূজা শেষে সকলে মিলে জগজ্জননী দুর্গার চরণে নিবেদন করবেন পুষ্পাঞ্জলি। সুখ-শান্তি, সমৃদ্ধি ও বৈশ্বিক মহামারি করোনা থেকে মুক্তি কামনায় সমাগত পুণ্যার্থীদের কন্ঠে সমস্বরে উচ্চারিত হবে শান্তির মন্ত্র। নানা বয়স ও শ্রেণী পেশার মানুষের উপস্থিতিতে প্রতিটি মন্দির প্রাঙ্গণ পরিণত হবে মহাতীর্থে।
গতকাল শুক্রবার মহাসপ্তমী বিহিত পূজা থেকেই মূলতঃ সাড়ম্বরে শুরু হলো পূজা। আজ দ্বিতীয় দিনের মতো দুর্গতি নাশিনী দেবী দুর্গার শ্রীচরণে পুষ্পাঞ্জলি অর্পণ করবেন ভক্তরা। সেই সাথে চলবে বিশ্বের সকল মানুষের সুখ, শান্তি, সমৃদ্ধি ও বৈশ্বিক মহামারি করোনা থেকে মুক্তি কামনায় বিশেষ প্রার্থনা। একই সাথে দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনা করা হবে প্রতিদিন মন্দিরে মন্দিরে।
অন্যান্য বছর নগরীর নাইওরপুল এলাকার রামকৃষ্ণ মিশন ও বলরাম জিউড় আখড়া, দাড়িয়াপাড়ার চৈতালী সংঘ, ঝুমকা সংঘ, সনাতন যুব ফোরাম, জিন্দাবাজার, জল্লারপাড়ের সত্যম শিবম সুন্দরম, মণিপুরী রাজবাড়ি, লামাবাজার তিন মন্দির, কাজলশাহ, মিরের ময়দান, জামতলা, তোপখানা, মাছিমপুর মণিপুরী পাড়া, মাছিমপুর কুরি পাড়া, চালিবন্দর, যতরপুর, মিরাবাজার, রায়নগর, সোনাতুলা, গোপালটিলা, দুর্গাবাড়ি, বালুচর, আম্বরখানা, করেরপাড়া, পনিটুলা, আখালিয়া কালীবাড়ি, শেখঘাট, মাছুদিঘিরপারের ত্রিণয়নী, গোটাটিকর, জৈনপুর ও শিববাড়ি এলাকায় ভক্তদের ঢল নামতো।
এবার চিত্র কিছুটা ভিন্ন। সাধারণ মানুষের মধ্যে একটা ভীতি জন্মেছে পূজা দেখতে গিয়ে ভিড়ের কারণে মহামারি করোনায় আক্রান্ত যেন না হন। এজন্য অনেককে পূজা দেখার সময় ভিড় এড়িয়ে চলতে দেখা যায়।

 

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • কেমুসাস নির্বাচনের তফসিল ও চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ
  • মৌলভীবাজারের সব থানায় আইপি ক্যামেরা স্থাপন
  • নগরীর বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আনোয়ার আলীর ইন্তেকাল
  • জেলা ও মহানগর ব্যব্যসায়ী ঐক্য কল্যাণ পরিষদের দোয়া মাহফিল
  • নবীগঞ্জে সিএনজি অটোরিক্সা উল্টে একজনের মৃত্যু
  • বসতভিটা রক্ষায় সহযোগিতা চান মুক্তিযোদ্ধার সন্তান
  • মাস্ক না পরায় ৩৯৩টি মামলা ১ লাখ টাকা জরিমানা
  • ২৪ ঘণ্টায় মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জে কেউ আক্রান্ত হননি
  • দেশে কৃষি বিপ্লবের মাধ্যমে মানুষের ভাগ্য উন্নয়ন সম্ভব : মুহিবুর রহমান মানিক এমপি
  • ২ বছরেও দোয়ারাবাজারের তৌহিদ হত্যার বিচার হয়নি
  • সকল অনাবাদি জমি চাষাবাদের আওতায় আনতে হবে: মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী
  • আজীবন আপনাদের সেবক হিসেবে কাজ করতে চাই
  • অপরাধ নিয়ন্ত্রণে সবার সহযোগিতা চাই ॥ এসএমপি কমিশনার
  • ডিসেম্বরে ঢাকা কলকাতা রুটে চলবে বিমান
  • ১৪ দিনের রিমান্ডে গোল্ডেন মনির
  • আজিজ আহমদ সেলিমের মৃত্যুতে সম্পাদক পরিষদ সিলেট-এর শোক প্রকাশ
  • এক বছরেও কুমারগাঁও বাস টার্মিনাল অংশ সংস্কারের পদক্ষেপ নেই
  • এক বছরেও পূর্ণাঙ্গ হয়নি জেলা আ’লীগের কমিটি
  • নগরবাসীর সহযোগিতায় সড়ক প্রশস্তকরণ সম্ভব হয়েছে
  • সিলেট-তামাবিল সড়ক দু’দফায় ৪ ঘণ্টা অবরোধ
  • Developed by: Sparkle IT