শেষের পাতা

শায়েস্তাগঞ্জে বাল্যবিয়ে পণ্ড করলো প্রশাসন !

শায়েস্তাগঞ্জ (হবিগঞ্জ) থেকে নিজস্ব সংবাদদাতা ঃ প্রকাশিত হয়েছে: ৩০-১০-২০২০ ইং ০৩:১২:৩১ | সংবাদটি ৫৩ বার পঠিত

 হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় ৮ম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুল ছাত্রীর বাল্যবিয়ে বন্ধ করেছে উপজেলা প্রশাসন। প্রশাসনের উপস্থিতি টের পেয়ে বাল্যবিয়ের আয়োজন হয়ে যায় মিলাদ মাহফিলে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় উপজেলার নছরতপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় উপজেলার নছরতপুর গ্রামে এক স্কুল ছাত্রীর বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত হয়ে ‘বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন ২০১৭’ অনুযায়ী বিয়ে বন্ধ করে দেন শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মিনহাজুল ইসলাম। একই সাথে মেয়ে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবেন না মর্মে উপজেলা প্রশাসনের কাছে মুচলেকা দেন কনের পিতা। পরে বিয়ের অনুষ্ঠান মিলাদ মাহফিলের মাধ্যমে শেষ হয়। মেয়ের বাবাসহ স্থানীয় মুরুব্বিরা এখানে মিলাদের আয়োজন করা হয়েছে বলার পর প্রশাসনের জেরার মুখে বিয়ে অনুষ্ঠানের কথা স্বীকার করেন তারা।
সূত্রে জানা যায়,উপজেলার নুরপুর ইউনিয়নের নছরতপুর গ্রামের আব্দুল হাইয়ের পুত্র খোকন মিয়ার সাথে একই গ্রামের মোঃ সফিক মিয়ার স্কুল পড়ুয়া কন্যার বিয়ের দিন ধার্য ছিল গতকাল বৃহস্পতিবার। মেয়ের বিয়ের সকল আয়োজন শেষে বরপক্ষের লোকজনের জন্য ভুরিভোজের আয়োজনও করেছিলেন বাড়ির আঙিনায়। তবে কনে অপ্রাপ্ত বয়স্ক এমন সংবাদ শায়েস্তাগঞ্জ থানার পুলিশ জানতে পেরে উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে অবগত করেন। পরে উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশের লোকজন মিলে বাল্য বিয়ে বন্ধ করে দেন। মেয়ের বাবা সফিক মিয়া মুচলেকা দিয়ে জেল জরিমানা থেকে রক্ষা পান এবং মেয়ে প্রাপ্ত বয়স না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দিবেন না মর্মে অঙ্গীকার করেন। মেয়েটি স্থানীয় নূরপুর আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী।
এসময় উপস্থিত ছিলেন শায়েস্তাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) অজয় চন্দ্র দেব, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ সাদ্দাম হোসেন প্রমুখ।
শায়েস্তাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) অজয় চন্দ্র দেব বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যেতেই বাল্য বিয়ে হয়ে যায় মিলাদ মাহফিলে। তারপর আমাদের জিজ্ঞাসাবাদে সত্যতা বেরিয়ে আসে।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মিনহাজুল ইসলাম জানান, পুরুষের ক্ষেত্রে ২১ ও মেয়ে ১৮ বছর না হলে আইনত অপ্রাপ্ত বয়স্ক। অপ্রাপ্ত বয়সের মেয়ের বিয়ে ছিল জেনে আমরা আইন অনুযায়ী বন্ধ করেছি। এটি মূলত রাষ্ট্রীয় আইন এটিকে অক্ষুন্ন রাখা এবং আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সুস্থ ও স্বাভাবিক রাখার জন্য আমরা সরকারের এ কাজগুলো করছি।

 

শেয়ার করুন
শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • করোনা সচেতনতা মহানগর বিএনপির মাস্ক বিতরণ
  • সরকার ধান চাষের পাশাপাশি রবি শস্য ফলনের প্রতি জোর দিচ্ছে :মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী এমপি
  • ছাতকের জাহিরভাঙ্গা-বসন্তপুর বেড়িবাঁধে ক্ষতিগ্রস্ত হবার আশঙ্কা ১৬ গ্রামবাসীর
  • সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগার বিদেশি কয়েদীদের মধ্যে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির নিত্য ব্যবহার্য জিনিসপত্র প্রদান
  • ছাতকে ১৫ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও স্যানিটারি ল্যান্ড ফিল্ড
  • সিলেটে বাড়ছেই করোনা রোগী
  • দেশে করোনায় আরও ৩৬ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৯০৮
  • ‘গোয়াইনঘাটে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও অবৈধ রয়েলিটি বন্ধ না হলে আন্দোলন’
  • স্থানীয় সরকার বিভাগকে আরো শক্তিশালী করা হচ্ছে : মুহিবুর রহমান মানিক এমপি
  • নবীগঞ্জে আগুনে পুড়ে শারীরিক প্রতিবন্ধী নারীর মৃত্যু
  • সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আলী যাকেরের মৃত্যুতে লিডিং ইউনিভার্সিটির শোক
  • মৌলভীবাজারে মাস্ক না পরায় ২০ হাজার টাকা জরিমানা
  • কুলাউড়া ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতি’র ত্রি-বার্ষিক নির্বাচন সম্পন্ন
  • ধর্মপাশায় ভূমিহীন ও গৃহহীনদের জন্য ৩২টি গৃহ নির্মিত হচ্ছে
  • তাহিরপুরে কৃষকদের মধ্যে বীজ বিতরণ
  • মাধবপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ৫০ শয্যায় উন্নীত হওয়ার পরও সুফল পাচ্ছেন না এলাকাবাসী
  • জগন্নাথপুরে কৃষি প্রণোদনা পাচ্ছেন ১১শ’ কৃষক
  • মণিপুরী সংস্কৃতির চর্চার আশানুরূপ অগ্রগতি হচ্ছে না --সন্দ্বীপ কুমার সিংহ
  • ধর্মপাশায় হাওর রক্ষা বাঁধের জরিপ কাজ শুরু
  • আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশের উন্নয়ন হয় : মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী এমপি
  • Developed by: Sparkle IT